‘অডিও কানে না লাগলে ব্যায়বহুল ভিডিও করে লাভ নেই’

41

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আঁখি আলমগীর। নিজের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অনেক  শ্রোতাপ্রিয় গান তিনি উপহার দিয়েছেন। অ্যালবাম ও সিনেমার গানে সমান সফলতাও পেয়েছেন তিনি। ভিন্নধর্মী মিউজিক ভিডিওর ক্ষেত্রেও আঁখির বিশেষ নাম রয়েছে। তবে সবচেয়ে আশ্চর্যের বিষয় হলো ক্লান্তিহীনভাবে ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে সমান জনপ্রিয়তা নিয়ে স্টেজ মাতাচ্ছেন তিনি। দেশের বড় কোন শো মানেই আঁখি আলমগীর। স্টেজ মাতানোতে এ শিল্পীর রয়েছে  অন্যরকম যোগ্যতা। সেটা তিনি প্রমাণ করেছেন অনেক আগেই। বর্তমানে আঁখি ব্যস্ত রয়েছেন স্টেজ, প্লেব্যাক, অডিও গানসহ টিভি অনুষ্ঠান নিয়ে। সম্প্রতি লন্ডন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন এই গ্ল্যামারাস সংগীত তারকা। তবে স্টেজ শো করতে নয়, পারিবারিক সফরেই এবার লন্ডন গিয়েছিলেন আঁখি। সব মিলিয়ে কেমন আছেন? দিনকাল কেমন কাটছে? আঁখি আলমগীর বলেন, খুব ভালো কাটছে। আসলে একই কাজ করতে করতে একঘেয়েমি একটি ব্যাপার চলে আসে। সেদিক থেকে চিন্তা করেই এবার লন্ডন গিয়েছিলাম দুই মেয়েসহ। দেশে ফিরে খুব ফ্রেশ লাগছে। এবার পূর্ণ গতিতে কাজ শুরু করতে পারবো। লন্ডন সফরটা কেমন ছিলো? আঁখি বলেন, লন্ডন গিয়েছিলাম শুধুমাত্র ঘুরতে। দুই মেয়েসহ অনেক জায়গায় ঘুরেছি। এখানে আসার পর অনেকেই বলেছে শো করতে। কিন্তু আমি রাজী হইনি। কারণ এ সময়টা কেবল আমার বাচ্চাদের জন্যই বরাদ্দ। কাজ তো করছি সেই কবে থেকে। সামনেতো আরো হবে ইনশাআল্লাহ। কিন্তু কিছু কিছু সময় কাজের চেয়ে সন্তানদের প্রাধান্য দিতে হয়। প্রায় দুই সপ্তাহ ছিলাম লন্ডনে। বিভিন্ন বিখ্যাত জায়গায় গিয়েছি আমরা। আত্মীয় এবং বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গেও দেখা হয়েছে অনেক দিন পর। সব মিলিয়ে ভালো একটা সময় পার করেছি। বর্তমান ব্যস্ততা কি নিয়ে? আঁখি বলেন, লন্ডনে আরো কিছু সময় থাকতাম। কিন্তু শো আর রেকর্ডিং রয়েছে। এ কারণে তাড়াতাড়ি ফিরে এসেছি। এসেই ব্যস্ত হয়ে পড়তে হয়েছে। তবে বৃষ্টি চলছে টানা কয়েকদিন ধরে। এ কারণে শো আয়োজন আউটডোরে তেমন হচ্ছে না। আর আমি নিজেও বৃষ্টিটা উপভোগ করছি। বলতে পারেন বৃষ্টির মাঝে অবসর কাটাচ্ছি এখন। নতুন গানের কি খবর? আঁখি বলেন, নতুন গান করেছি কিছু। কয়েকদিন আগেই আসিফ আকবরের সঙ্গে আমার ‘দস্যি’ শিরোনামের গান প্রকাশ হয়েছে। গানটি শ্রোতারা ভালোই পছন্দ করেছেন। এছাড়াও আরো দু-তিনটি নতুন গান করা রয়েছে। সময় সুযোগমতো সেগুলো প্রকাশ করবো। সিনেমার গানের কি খবর? আঁখি আলমগীর বলেন, সিনেমায় প্লেব্যাক করতেই আমার বেশি ভালো লাগে। কারণ সেখানে নায়িকা কিংবা অভিনেত্রীর মতো করে গল্প অনুযায়ী গানের এক্সপ্রেসন দিতে হয়। তাই আমি বলবো, প্লেব্যাকে চ্যালেঞ্জের একটি ব্যাপার আছে। সে কারণে ভালো কিছু গানই কেবল সিনেমায় করতে চাই। এই সময়ের গান কেমন হচ্ছে বলে মনে হয় আপনার? আঁখি বলেন, বেশ ভালো। তরুণরা ভালো করছে। যারা ভালো গায় তাদের অনুপ্রাণিত করতে আমার ভালো লাগে। সেদিক থেকে যতদূর সম্ভব আমি তরুণ প্রজন্মের মেধাবী শিল্পী, গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালকদের উৎসাহ দেয়ার চেষ্টা করি। কারণ তরুণদের কাছেইতো সংগীতের ভবিষ্যত। তবে একঘেয়েমিতা থেকে যেন তরুণরা বেরিয়ে আসে সেটাই চাইবো। ভিন্নধর্মী গান করতে হবে। তাহলে মানুষের কানে লাগবে। এখনতো অডিওর চেয়ে ভিডিওর ক্ষেত্রেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এ বিষয়টি আপনি কিভাবে দেখেন? আঁখি বলেন, অবশ্যই অডিওর উপর আগে জোর দিতে হবে। ভালো অডিও না হলে ভিডিও করার কোন মানেই হয় না। ভিডিওটা সময়ের দাবি। কিন্তু অডিও কানে না লাগলে ব্যায়বহুল ভিডিও করে লাভ নেই।