অভিনয়ে আমির পুত্র

49

বলিউডের রুপালি পর্দায় বাপ, মামা, চাচা বোন এসব থাকলে অভিনয়ে আসা কোনো ব্যাপার নয়। সুযোগকে কাজে লাগালে আসা যায় বলিউডের চৌহদ্দিতে। কিন্তু এ সহজ পথকে কাজে লাগাতে চান না জুনায়েদ খান। রুপালি পর্দার ঝলমলে জগতে নামার আগে হয়তো নিজেকে ঝালিয়ে নিতে চান মঞ্চনাটকে। তিনি বিশ্বাস করেন ভিত্তি মজবুত না করে অভিনয় করা ঠিক নয়। তার কারণ হচ্ছে জুনায়েদ আমির খানের ছেলে। বাবার মত কাজের প্রতি খুব সিরিয়াস তিনি। তাই এই বিষয়ে রীতিমতো মার্কিন মুলুক থেকে পড়াশোনা করে এসেছেন। এই মাসেই দর্শকদের সামনে নিজের প্রথম মঞ্চ পরিবেশনা নিয়ে হাজির হবেন। জার্মান নাট্যকার ব্রেখটের ‘মাদার কারেজ অ্যান্ড হার চিলড্রেন’ নামে মঞ্চনাটকটি নির্দেশনা দিচ্ছেন পাদামসি। এই নাটকের একাধিক চরিত্রে অভিনয় করছেন জুনায়েদ। পাদামসি জানান, জুনায়েদকে তিনি আগে চিনতেন না। একদিন একজন ফোন করে এই নাটকে অভিনয়ের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। তাকে ঝালিয়ে নিয়েই পরে দেয়া হয়েছে সুযোগ। আর কাজের প্রতি জুনায়েদের নিষ্ঠা ও আগ্রহ দেখে বোঝা যাচ্ছে, ‘বাপ কা বেটা’! মুম্বইয়ের এইচ আর কলেজ থেকে স্নাতক করার পর জুনায়েদ চলে গিয়েছিলেন লস অ্যাঞ্জেলেসে। সেখানে আমেরিকান অ্যাকাডেমি অব ড্রামাটিক আর্ট থেকে মঞ্চে অভিনয়ের ওপর ডিগ্রি নিয়ে এসেছেন। ‘পিকে’ ছবিতে পরিচালক রাজকুমার হিরানির সহকারী হিসেবে কাজ করেছিলেন। প্রস্তুতিটা তার ভালোই হচ্ছে। প্রসঙ্গত জুনায়েদ আমিরের প্রথম স্ত্রী রিনা দত্তের সন্তান। সেই সংসারে আমিরের একটি মেয়েও আছে। নাম ইরা। আর বর্তমান স্ত্রী কিরণ রাওয়ের ঘরে একমাত্র সন্তান আজাদ।