আইএস নেতা বাগদাদি নিহত: রাশিয়া

28

রাশিয়ার বিমান হামলায় মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি নিহত হয়ে থাকতে পারেন। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ বক্তব্য দিয়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে এখন তদন্ত চলছে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।
রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ২৮শে মার্চ সিরিয়ার রাক্কায় রাশিয়ার একটি বিমান হামলায় ৩৩০ জন আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে আইএস প্রধান বাগদাদিও থাকতে পারে। আইএস’র রাজধানী খ্যাত রাক্কায় জঙ্গিগোষ্ঠীটির সামরিক পরিষদের বৈঠককে বিমান হামলায় টার্গেট করা হয়।
তবে অতীতে বহুবার বাগদাদির মৃত্যুর খবর প্রকাশিত হয়েছে। কিন্তু পরে সেসব খবরের সত্যতা নিশ্চিত করা যায়নি। আইএস-এর বিরুদ্ধে লড়াইরত মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল জন ডোরিয়ান বলেছেন, এবারও বাগদাদির মৃত্যুর খবর তারা নিশ্চিত করতে পারছেন না। সিরিয়ার সরকারও আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি।
রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় অর্থায়নে পরিচালিত সংবাদ মাধ্যম স্পুটনিকে প্রকাশিত হয় দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি। বিবৃতিতে বলা হয়, রাক্কার ওই বৈঠকে আইএস’র ৩০ জন সামরিক কমান্ডার ও ৩০০ জন যোদ্ধা অংশ নিয়েছিল। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘বিভিন্ন চ্যানেলের মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া তথ্য মতে, আইএস নেতা ইবরাহিম আবু-বকর আল-বাগদাদি, যিনি ওই বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন, তিনিও ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।’
গত বেশ কিছুটা সময় ধরে বাগদাদির অবস্থান সম্পর্কে কারও কাছে তথ্য ছিল না। ২০১৬ সালের অক্টোবরে ইরাকের মসুল পুনর্দখলে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর অভিযান শুরু হওয়ার পূর্বে তিনি ওই শহরেই থাকতেন বলে ধারণা করা হতো।
বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে, মসুল বা রাক্কায় থাকার বদলে তিনি হাজার বর্গমাইল বিস্তৃত মরুভূমিতে লুকিয়ে আছেন।