আবদুল জব্বারের শারীরিক অবস্থার অবনতি

36

তিন মাস ধরে গুরুতর অসুস্থ কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী আবদুল জব্বার। বর্তমানে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬২০ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন তিনি। তার শারীরিক অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে। দুটি কিডনিই নষ্ট হয়ে গেছে আবদুল জব্বারের। সুস্থ করে তুলতে এ মুহূর্তে দেশের বাইরে নেয়ার প্রয়োজন মনে করছেন চিকিৎসক ও তার পরিবারের সদস্যরা। এ প্রসঙ্গে আবদুল জব্বারের ছোট ছেলে বাবু জব্বার বলেন, গত দুদিন ধরেই বাবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তিনি এখন কাউকে ভালো করে চিনতে পারছেন না। ডাক্তার বলেছেন উন্নত চিকিৎসার জন্য বাবাকে দ্রুত দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন। নইলে তাকে বাঁচানো সম্ভব নয়। কিন্তু সেই সামর্থ্য আমাদের নেই। আবদুল জব্বারের প্রেসার একেবারেই নেমে যাচ্ছে, পায়ে পানি নেই। তিন মাস হাসপাতালে শুয়ে আছেন। তাই পিঠের অনেক স্থানে ঘা হয়ে গেছে। বাবু জব্বার আরো বলেন, প্রতিদিন ইনজেকশন দিতে হচ্ছে। অনেক টাকা যাচ্ছে। হাতের সবই প্রায় শেষ। এত টাকা কোথায় পাব? মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দু’বছর আগে ২০ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র দিয়েছিলেন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর হাসপাতালে দেখতে এসে বাবাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সহযোগিতার আশ্বাসও দিয়েছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা কোনো সাহায্য পাইনি। দেশ স্বাধীনের জন্য আবদুল জব্বার তার কণ্ঠে বিভিন্ন গান গেয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা জুগিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ জীবনে এসে তার পাশে তেমন কাউকে পাচ্ছেন না বলে জানান তার ছোট ছেলে বাবু জব্বার। অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, তার বাবাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হোক।

Advertisement
Print Friendly, PDF & Email
sadi