আলাপন ‘নাটকের গল্প ও লোকেশনসহ সব কিছুতে নতুনত্ব দেখাতে হবে’

43

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মেহজাবিন। ক্যারিয়ারের বেশ সু-সময় পার করছেন এখন। একের পর এক দর্শকপ্রিয় নাটক উপহার দিয়ে দর্শকদের মধ্যে অন্য রকম আবহ তৈরি করেছেন তিনি। এই সময়ে মেহজাবিন মানেই ভিন্ন কিছু কিংবা নতুন কোনো চমক। নতুন কাজের ক্ষেত্রে নির্মাতারাও তাকে নিয়ে ভিন্ন ভাবে পরিকল্পনা করছেন। এই সু-সময়কে কেমন উপভোগ করছেন জানতে চাইলে এই অভিনেত্রী বলেন, দর্শকদের ভালোবাসায় আমি মুগ্ধ। আমি সব সময় দর্শকদের জন্য কাজ করে আসছি। আগামীতেও নতুন নতুন চরিত্র নিয়ে দর্শকদের সামনে নিজেকে উপস্থান করবো। যতদিন দর্শক আমাকে ও আমার কাজকে ভালোবাসবেন ততদিনই অভিনয় করতে চাই। বর্তমানে খন্ড নাটক ও টেলিছবির কাজ নিয়ে মেহজাবিন ব্যস্ত সময় পার করছেন। সম্প্রতি তিনি ‘সে দাঁড়িয়ে দুয়ারে’ শিরোনামের একটি টেলিছবির শুটিং শেষ করেছেন। এটি পরিচালনা করেছেন ফয়েজ আহমেদ। এটিতে মেহজাবিনের সঙ্গে দেখা যাবে এই সময়ের তরুণ অভিনেতা জোবানকে। এতে অভিনয় প্রসঙ্গে মেহজাবিন বলেন, আমি সবসময়ই গল্প এবং চরিত্রের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে আসছি। এই টেলিছবিতেও দর্শক আমাকে একটি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে  দেখতে পাবে। দর্শকদের উপভোগ করার মতো একটি টেলিছবি এটি। এছাড়া জোবানের সঙ্গে আগেও কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। সেই কাজগুলো দর্শকদের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। এই কাজটিও দর্শক গ্রহণ করবে বলে বিশ্বাস করি। নির্মাতা জানিয়েছেন খুব শিগগিরই টেলিফিল্মটি একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে। মেহজাবিনের ক্যারিয়ারের সর্বাধিক জনপ্রিয় নাটক হলো ‘বড় ছেলে’। এটি পরিচালনা করেছেন মিজানুর রহমান আরিয়ান। গেলো ঈদে বেসরকারি একটি চ্যানেলে নাটকটি প্রচারের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে হয়ে পড়ে। নাটকটিতে মেহজাবিনের রোমান্স, আবেগ, অনুভূতি, হাসি ও কান্না সবই দর্শক দারুণভাবে উপভোগ করেছেন। মধ্যবিত্ত পরিবারের বড় ছেলের টানাপড়েনের গল্প নিয়ে নাটকটির গল্প তৈরি হয়েছে। এই নাটকে মেহজাবিন জুটি বাঁেধন জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্বর সঙ্গে। এদিকে ‘বড় ছেলে’র পর মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘আস্থা’ শিরোনামের আরো একটি নাটকে কাজ করলেন মেহজাবিন। এই নাটকেও তার সঙ্গে দেখা যাবে ‘বড় ছেলে’খ্যাত অপূর্বকে। আগামী ভালোবাসা দিবসের জন্য এই নাটকটি নির্মাণ হয়েছে। নতুন এ  নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে মেহজাবিন বলেন, এর গল্প ভাবনায় নতুনত্ব আছে। সব সময়ের মতোই আমি আন্তরিকতা নিয়ে কাজটি করেছি। আশা করি গল্প এবং আমাদের অভিনয় দর্শকদের মুগ্ধ করবে। নাটকে অপূর্ব অভিনয় করেছেন রিয়াদ চরিত্রে এবং মেহজাবিনের চরিত্রের নাম মিম। এ ছাড়া নাটকটিতে বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে মৌসুমী হামিদ, ইশানা ও আইরিন আফরোজকে। বর্তমান সময়ের ভালোবাসা ও আগেকার দিনের ভালোবাসার পেক্ষাপট এই নাটকে তুলে ধরা হয়েছে বলে জানা যায়। বরাবরই বিভিন্ন বৈচিত্রময় চরিত্র রূপদানের মধ্য দিয়ে নিজেকে ভেঙ্গে নতুন অবয়বে পর্দায় উপস্থাপন করে থাকেন মেহজাবিন। একটি চরিত্র রূপদানের ক্ষেত্রে কোন বিষয়টিকে এ অভিনেত্রী গুরুত্ব দিয়ে থাকেন জানতে চাইলে বলেন, আমি দৃশ্য ধারণের আগে চরিত্রটি ভালোভাবে বুঝে নিই। তারপর নির্মাতার ভাবনা অনুযায়ী সেটি রূপদানের চেষ্টা করি। আমি মনে করি একজন নির্মাতাই পারেন শিল্পীর কাছ থেকে নতুন কিছু বের করতে। তিনি যেভাবে চান সেভাবে কাজ করলে অব্যশ্যই ভালো কিছু সৃষ্টি হবে। মানবজমিনের সঙ্গে আলাপকালে মেহজাবিন এই সময়ের নাটকের মান উন্নয়ন সর্ম্পকেও অভিমত প্রকাশ করেন। দক্ষ ও নতুন নির্মাতাদের কাজের সুযোগ দেয়ার মধ্য দিয়ে নাটকের মান উন্নয়ন সম্ভব বলে তিনি মনে করেন। তিনি আরো বলেন, এখন অনেক নতুন নির্মাতা আর্šÍজাতিক মানের কাজ করার চিন্তা ভাবনা করেন। আধুনিকায়নের সঙ্গে সঙ্গে আমাদেরও এগিয়ে যেতে হবে। নাটকের গল্প ও লোকেশনসহ সব কিছুতে নতুনত্ব দেখাতে হবে। অভিনয় শিল্পীদেরও দেখে-বুঝে ভালো গল্প ও চরিত্রে কাজ করতে হবে।