আশা’র প্রতিষ্ঠাতা সফিকুল হক চৌধুরীর মাগফেরাত কামনায় শ্রীবরদীতে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল

27

তাসলিম কবির বাবু : বেসরকারি এনজিও আশা’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট এবং সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের কৃষি যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক উপদেষ্টা সফিকুল হক চৌধুরীর আত্মার মাগফেরাত কামনায় শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলাতে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার শ্রীবরদীতে আশা সদর -১ ও ২ ব্রাঞ্চের আয়োজনে উপজেলার মারকাস মসজিদ ও উপজেলা পরিষদ মসজিদে ওই দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

সফিকুল হক চৌধুরী গত ১২ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করে। পরে তাঁকে মিরপুর বুদ্ধিজীবি কবরস্থানে দাফন করা হয়। সফিকুল হক চৌধুরী হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে বিএ (অনার্স) ও এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি কুমিল্লা বার্ড ও সিসিডিবিতে কিছুদিন কাজ করেন। তিনি সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও সরকারি চাকুরীতে যোগদান করেননি। সফিকুল হক চৌধুরী ১৯৭৮ সালে বেসরকারি এনজিও আশা প্রতিষ্ঠা করে। আশা এনজিও টি শীর্ষ স্থানীয় ক্ষুদ্রঋণ প্রতিষ্ঠান হিসাবে বিশ্বজুড়ে সুনামের সাথে পরিচালিত হয়ে আসছে। তিনি আশা ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ, আশা ম্যাটস এবং হোপ ফর দা পুওরেস্ট প্রতিষ্ঠা করেন।

দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন আশা’র শ্রীবরদী অঞ্চলের আরএম মো: সহিদুল ইসলাম, আশা শ্রীবরদী সদর ১ ব্রাঞ্চের ম্যানেজার মো: নুরুল ইসলাম, আশা শ্রীবরদী সদর ২ ব্রাঞ্চের ম্যানেজার মো: নুর আলমসহ আশার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাধারণ মুসল্লিগণ।

উল্লেখ্য ১৯ ফেব্রুয়ারি সারাদেশের ন্যায় শ্রীবরদী উপজেলায় আশা’র ৬টি ব্রাঞ্চের উদ্যোগে একযোগে বিভিন্ন মসজিদে এ দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।