একটি যুগের সমাপ্তি আজ

41

অ্যাথলেটিকসের ইতিহাসে সর্বকালের সেরা স্প্রিন্টার উসাইন বোল্ট শেষবারের মতো আজ ট্র্যাকে নামবেন। লন্ডনের অ্যাথলেটিকস বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে জ্যামাইকা দলের সতীর্থদের সঙ্গে দৌড়াবেন ৪ী১০০ মিটার রিলেতে। এবারের আসর শুরুর আগেই নিজের অবসরের ঘোষণা দেন জ্যামাইকান এ জীবন্ত কিংবদন্তি। জানান- লন্ডনেই শেষবারের মতো আন্তর্জাতিক কোনো টুর্নামেন্টে দৌড়াবেন। ইতিমধ্যে ব্যক্তিগত ইভেন্টে শেষবারের মতো দৌড়ে ফেলেছেন বোল্ট। সপ্তাহখানেক আগে ১০০ মিটারে দৌড়ান। স্প্রিন্টের প্রায় সব রেকর্ড নিজের করে নেয়া এ দৌড়বিদ জীবনের ব্যক্তিগত শেষ দৌড়ে স্বর্ণ জিততে পারেননি। এমনকি দ্বিতীয়ও হতে পারেননি। জেতেন ব্রোঞ্জ পদক। পুরো ক্যারিয়ারে বোল্টের ছায়ার নিচে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের স্প্রিন্টার জাস্টিন গ্যাটলিন জেতেন স্বর্ণ। জীবনের শেষ আসরে ব্যক্তিগত ইভেন্টে ‘ব্যর্থ’ হওয়ার পর আজ তার সামনে দলীয় অর্জনের সুযোগ। বোল্টের জ্যামাইকান সতীর্থরা তাকে স্বর্ণের মাধ্যমে বিদায় দেয়ার জন্য মুখিয়ে। এই ইভেন্টে বরাবরের মতো এবারও ফেভারিট বোল্টের দল। ২০০৮ সাল থেকে এ পর্যন্ত অলিম্পিক ও বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ৭ বার ৪ী১০০ রিলেতে স্বর্ণ জিতেছে জ্যামাইকা। এছাড়া বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপে মোট স্বর্ণ ১১টি। আজকের রিলেতে বোল্টের সঙ্গী থাকবেন আরেক বিখ্যাত দৌড়বিদ ইয়োহান ব্লেক। বোল্টের বিদায়ী দৌড় নিয়ে তিনি বলেন, ‘দলের সবাই সামনের দিকে তাকিয়ে আছি। এই মানুষটার (বোল্ট) সঙ্গে আমরা হয়তো আর ব্যাটন পরিবর্তন করবো না। তাকে দারুণ উপহারে বিদায় দেয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত।’
স্প্রিন্টের প্রায় সব রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন বোল্ট। অলিম্পিকে ‘ট্রিপল ট্রিপল’ স্বর্ণ জয়ের অনন্য রেকর্ড রয়েছে তার। অলিম্পিকের চার আসরে খেলে জিতেছেন ৯ স্বর্ণ। ২০০৮- বেইজিং, ২০১২-লন্ডন ও ২০১৬-রিও অলিম্পিকে ১০০, ২০০ ও ৪ী১০০ মিটারে স্বর্ণ রয়েছে তারা। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ ক্রীড়া আসরে স্পিন্টে এত স্বর্ণ আর কারো নেই। বিশ্ব চ্যাম্পিয়শীপেও তিনি অনন্য। এখানে তার রয়েছে ১১ স্বর্ণ। একমাত্র দৌড়বিদ হিসেবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে তিনবার একই সঙ্গে ১০০ও ২০০ মিটারে স্বর্ণ জিতেছেন। বিশ্বের সবচেয় দ্রুততম মানব তিনি। বৈশ্বিক যে কোনো টুর্নামেন্টে ১০০ মিটারে সবচেয়ে কম সময়- ৯.৫৮ সেকেন্ডে দৌড়ানোর রেকর্ড বোল্টের। ২০০৯ বার্লিনে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে এই রেকর্ড গড়েন তিনি। একই বছর একই আসরে ১৯.১৯ সেকেন্ড ২০০ মিটার দৌড়ে এই ইভেন্টেও বিশ্বরেকর্ড গড়েন তিনি। এছাড়া ৪ী১০০ রিলেতে সবচেয়ে কম সময়ে পার হওয়ার রেকর্ড জ্যামাইকার। ২০১২ অলিম্পিকে ৩৬.৮৪ সেকেন্ডে এই রেকর্ড গড়ে দলটি। জ্যামাইকার ওই রেকর্ড গড়া দলের সাদস্য ছিলেন বোল্ট।