এবারও দুই ওপেনারের ঝলক

23

দক্ষিণ আফ্রিকার দুই ওপেনার এবার দেখালেন আরো বড় ঝলক। পচেফস্ট্রুমে সংগ্রহ ছাড়িয়ে যান এবার। ব্যাট হাতে ধৈর্য ও সৌকর্যের পৃথক দুই মাইলফলক স্পর্শ করলেন ডিন এলগার। আর ব্লুমফন্টেইনে দিন শেষে গর্বের একাধিক রেকর্ডে নাম উঠলো দক্ষিণ আফ্রিকার। টানা দ্বিতীয় টেস্টে সেঞ্চুরির কৃতিত্ব দেখালেন ডিন এলগার। গতকাল নিজের উইকেট দেয়ার আগে ১১৩ রান করেন এ প্রোটিয়া ওপেনার। ১৫২ বলের ইনিংসে এলগার হাঁকান ১৭টি বাউন্ডারি। আর মার্করাম আউট হন ১৮৬ বলে ১৪৩ রান করে। দলের রান তখন ২৭৬।
ব্লুমফন্টেইন টেস্টের প্রথম দিনের প্রথম সেশনে ৮৮ বল মোকাবিলা শেষে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যান ডিন এলগার। চলতি বছর টেস্টে ২০০০ বল মোকাবিলা করলেন প্রোটিয়া এ ওপেনার। ২০১৭ পঞ্জিকাবর্ষে আর কোনো ব্যাটসম্যানের এমন নজির নেই। গতকাল ব্যক্তিগত ৭২ রান নিয়ে লাঞ্চে যান ডিন এলগার। মারকুটে ইনিংসে ততক্ষণে এলগার হাঁকান ১৩টি বাউন্ডারি। এতে চলতি বছর ব্যাট হাতে ১০০০ রানও পূর্ণ হয় এলগারের। চলতি বছর টেস্টে ১০০০ রানের কৃতিত্ব দেখানো প্রথম ব্যাটসম্যান তিনি। আর হাশিম আমলার পর গত পাঁচ বছরে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টের এক পঞ্জিকাবর্ষে ১০০০ রানের কৃতিত্ব দেখালেন বাঁ-হাতি এ ওপেনার। সর্বশেষ ২০১২তে টেস্টে ১০০০ রানের কৃতিত্ব দেখান হাশিম আমলা। গতকাল দিনের শুরুতে ১০০০ থেকে ১৬ রান দূরে ছিলেন এলগার। তবে দ্রুতই পূর্ণ করেন ব্যক্তিগত অর্ধশতক। ৫৯ বলে পূর্ণ হয় এলগারের ফিফটি। এতে তিনি হাঁকান ১০টি চার। ৪১ ম্যাচের টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি এলগারের দ্রুততম অর্ধশতকের ঘটনা।
আগের টেস্টে পচেফস্ট্রমে ১৯৬ রানে ভাঙে এলগার-মার্করামের জুটি। তবে ব্লুমফন্টেইন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ওপেনিংয়ে শতরানের জুটি গড়েন এ দু’জন। এতে টানা দ্বিতীয় টেস্টে সেঞ্চুরি তুলে নেন ডিন এলগার। আর দক্ষিণ আফ্রিকার নবীন ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করাম ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্টেই দেখালেন সেঞ্চুরির কৃতিত্ব। দক্ষিণ আফ্রিকার দলীয় ২০০ রান পূর্ণ হয় মাত্র ৪১.৪ ওভারে। টাইগার পেসার রুবেল হোসেনের ডেলিভারিতে ২ রান নিয়ে দলীয় ২০০ রান পূর্ণ করেন এইডেন মার্করাম। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে টেস্টের ওপেনিং জুটিতে ২০০ রানের ঘটনা দেখা গেল দীর্ঘ একযুগ পর। এখানে সর্বশেষ ২০০৫-এ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওপেনিংয়ে ২০০ রানের জুটি গড়েন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ ও এবি ডি ভিলিয়ার্স। গতকাল দিনের ৫৪তম ওভারে প্রথম উইকেটের মুখ দেখে বাংলাদেশ। ৫৩.৪তম ওভারে প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগারকে সাজঘরে ফেরান টাইগার পেসার শুভাশিষ রায়। অপর পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে ক্যাচ দেন এলগার। এতে ভাঙে এইডেন মার্করামের সঙ্গে এলগারের ২৪৩ রানের জুটি।
ব্লুমফন্টেইনে দিনের প্রথম সেশনের ২৯ ওভারে সাফল্য বিমুখ থাকেন টাইগার বোলাররা। আর ১২৬/০ সংগ্রহ নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠান বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। আর টানা দ্বিতীয় টেস্টে ওপেনিংয়ে শতরানের জুটি গড়েন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম। ইনিংসে ২৪তম ওভারে দলীয় ১০০ রানের কোঠায় পৌঁছে দক্ষিণ আফ্রিকা। লাঞ্চের আগেই অর্ধশতক পূর্ণ করেন ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে ব্যক্তিগত ৭২ রানে এলগার ও ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন মার্করাম। প্রথম সেশনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বল তুলে দেন দলের পৃথক পাঁচ বোলারকে। এর আগে পচেফস্ট্রমে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রানের ইনিংস খেলেন প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগার। খেলা শেষে ৩৩৩ রানের জয় নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার কুড়ান এলগারই। আর প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার অভিষিক্ত ওপেনার এইডেন মার্করাম রানআউটে উইকেট খোয়ান ব্যক্তিগত ৯৭ রানে।