কখনো অবনমিত না হওয়া একমাত্র ক্লাব

24

১৯৩২ সালে যাত্রা শুরু ফরাসি লীগ ওয়ান ফুটবল আসরের। কিন্তু প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) ক্লাবের ইতিহাস খুব বেশি দিনের নয়। ১৯৭০ সালে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে প্রতিষ্ঠিত হয় ফুটবল ক্লাব পিএসজি। তবে শুরুতেই চমক দেখায় ফ্রান্সের রাজধানীর ফুটবল ক্লাবটি। লীগ-টু শিরোপা নিয়ে প্রতিষ্ঠার পরের বছরই ফরাসি লীগ ওয়ানে উন্নিত হয় প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। ফরাসি লীগ ওয়ান থেকে কখনো অবনমিত না হওয়া একমাত্র ক্লাবও পিএসজি। আর কাতারি ধনকুবের মালিকের অধীনে পিএসজির জৌলুস বেড়ে যায় বহুগুণ। ২০১১ সালে পিএসজি ক্লাব কিনে নেয় কাতারের প্রতিষ্ঠান কিউএসআই। ক্লাবের সভাপতির দায়িত্ব নেন কাতারি ধনকুবের নাসের আল খেলাইফি। কাঁড়াকাঁড়ি ডলারের বিনিয়োগে খোলনলচে পাল্টে যায় ক্লাবটির। ১৯৭১ থেকে ২০১০ পর্যন্ত ফুটবলে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই ফরাসী লীগ ওয়ান শিরোপার দেখা পায় মাত্রই দুবার (১৯৮৫-৮৬, ১৯৯৩-৯৪)। তবে শেষ ৭ বছরে চারবার এ শিরোপার স্বাদ নেয় পার্শিয়ানরা। অবশ্য ফ্রান্সের কাপ ফুটবলে শুরু থেকেই দাপুটে নৈপুণ্য পিএসজির। ফ্রেঞ্চ কাপে সর্বাধিক ১১ বারের চ্যাম্পিয়ন তারা। ফরাসি লীগ কাপ আসরেও তারা রেকর্ড ৭ বারের চ্যাম্পিয়ন। ইউরোপিয়ান ক্লাব আসরে শিরোপার কৃতিত্ব দেখানো দ্বিতীয় ফরাসি ক্লাবও পিএসজি। ১৯৯৫-৯৬ মৌসুমে কাপ উইনার্স কাপ ও ২০০১’র ইন্টার টোটো কাপ শিরোপা কুড়ায় প্যারিস সেইন্ট জার্মেই।
একনজরে পিএসজি
নাম: প্যারিস সেইন্ট জার্মেই ফুটবল ক্লাব
ডাকনাম: লেস পার্শিয়ানস
প্রতিষ্ঠা: ১৯৭০
মাঠ: পার্ক ডি প্রিন্সেস
দর্শক ধারণ ক্ষমতা: ৪৭৯২৯
মালিকানা: কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্টস
সভাপতি: নাসের আল খেলাইফি
কোচ-ম্যানেজার: উনাই এমেরি
শিরোপা
লীগ টু: ১৯৭০-৭১।
লীগ ওয়ান: ১৯৮৫-৮৬, ১৯৯৩-৯৪, ২০১২-১৩, ২০১৩-১৪, ২০১৪-১৫, ২০১৫-১৬।
ফ্রেঞ্চ কাপ: ১৯৮২, ১৯৮৩, ১৯৯৩, ১৯৯৫, ১৯৯৮, ২০০৪, ২০০৬, ২০১০, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭।
ফ্রেঞ্চ লীগ কাপ: ১৯৯৫, ১৯৯৮, ২০০৮, ২০১৪, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭।
ফ্রেঞ্চ সুপার কাপ: ১৯৯৫, ১৯৯৮, ২০০৮, ২০১৪, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭।
ইউয়েফা কাপ উইনার্স কাপ: ১৯৯৫-৯৬
ইউয়েফা ইন্টার টোটো কাপ: ২০০১