‘কমেডিতে ফরমালিন মিশ্রণ করা হচ্ছে’

40

কমেডির নামে বাংলা নাটকে ভাঁড়ামি চলছে বলে মনে করেন ‘আরমান ভাই‘ খ্যাত গুণী অভিনেতা জাহিদ হাসান। এখান থেকে বের হয়ে আসা উচিত বলে মনে করেন তিনি। জাহিদ হাসান মানেই নাটকে বাড়তি বিনোদন, বাড়তি কমেডি। কিন্তু এখন বেশিরভাগ নাটকের কমেডিতে ফরমালিন মিশ্রণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। ফলে দর্শক এখন বাংলা নাটক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। জাহিদ হাসান বলেন, এখন বেশিরভাগ হচ্ছে ফরমায়েশি নাটক। একটা নাটক দর্শক গ্রহণ করলে চ্যানেলগুলো সেই ধরনের নাটকই চায়। নতুন কিছু বানাবে, সেই চিন্তা নেই। একটা চরিত্র জনপ্রিয়তা পেলে সেই চরিত্রের রেশ ধরেই নাটক বানাতে হয়। তাহলে নতুন চরিত্র আসবে কী করে? নাটকের কমেডিকরণও দর্শক হারানোর অন্যতম কারণ জানিয়ে তিনি বলেন, এখন ঈদের নাটক মানেই কমেডি। এত এত কমেডি করতে গিয়ে সব সস্তা হয়ে গেছে। যারা মনে করেন সিরিয়াস নাটক দর্শক দেখে না তাদের ধারণা ভুল। এছাড়া চ্যানেলগুলো সরাসরি নাটক না নিয়ে এজেন্সির মাধ্যমে নাটক নেওয়াও বাংলা নাটকের ক্ষতির অন্যতম একটা দিক বলে মনে করেন এ অভিনেতা। গত ঈদে একটি নাটক একত্রে তিন চ্যানেলে প্রচার হয়েছে। জাহিদ হাসান এই প্রবণতাটাও ক্ষতিকর বলে মনে করেন। কেননা এর মধ্য দিয়ে কর্মসংস্থান কমে যাবে। নাটকের চাহিদাও কমে যাবে। বর্তমানে জাহিদ হাসান আগামী ঈদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন। তারই ধারাবাহিকতায় ‘রমজান ভাই পাবলিক ফিগার’ নামে একটি নাটকের শুটিং করেছেন উত্তরায়। নাটকে তার সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন তানিয়া বৃষ্টি। আপেল মাহমুদের লেখা ও সেখ সেলিমের পরিচালনায় নাটকটি আগামী ঈদে চ্যানেল আইতে দেখা যাবে বলে জানান তিনি।