ক্ষমতা কুক্ষিগত করার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ব্যস্ত সরকার : নোমান

29

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, দেশে নীরব দুর্ভিক্ষ চললেও সেদিকে নজর নেই। সরকারের নজর বিচার বিভাগের দিকে। আরেকটি প্রহসনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ক্ষমতা কুক্ষিগত করার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ব্যস্ত সরকার।

গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির কার্যালয় নাসিমন ভবনে চট্টগ্রাম উত্তর জেলার মহিলা দলের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহিলা দলের সমাবেশে আবদুল্লাহ আল নোমান চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির জন্য বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় গেলে ১০ টাকা চালের কেজি খাওয়ানোর কথা বলে জনগণকে ধোকা দিয়েছে আওয়ামী লীগ। বাজারে মোটা চালের কেজি এখন ৬০ টাকা। সবজি, পেঁয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় সব পণ্যের মূল্য সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে।

সেদিকে সরকারের নজর নেই। সরকারের নজর বিচার বিভাগের দিকে। নজিরবিহীন হস্তক্ষেপের মাধ্যমে বিচার বিভাগকে কুক্ষিগত করেছে সরকার। আাইনমন্ত্রী প্রধান বিচারপতির অসুস্থতার কথা প্রচার করলেও প্রধান বিচারপতি নিজমুখেই বলেছেন, তিনি স¤পূর্ণ সুস্থ।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনের মতো আরেকটি প্রহসনের নির্বাচন করে ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করার ষড়যন্ত্র করছে। নির্বাচন সামনে রেখে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ইস্যু করে হুমকি দিয়ে বিএনপিকে নির্বাচন বিমুখ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে সরকার কার্যকর কূটনৈতিক উদ্যোগ নিতেও ব্যর্থ হয়েছে সরকার। দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় এ সমস্যার সমাধান হবে না। জাতিসংঘসহ ত্রিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে হবে বলে মত প্রকাশ করেন আবদুল্লাহ আল নোমান।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা মহিলা দল নেত্রী নারগিস আক্তার সমাবেশের সঞ্চালনায় ছিলেন। প্রধান বক্তা ছিলেন মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ স¤পাদক সোলতানা আহমেদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা গোলাম আকবর খোন্দকার, এস এম ফজলুল হক, বিএনপির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক স¤পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির মহিলা বিষয়ক স¤পাদক নূরী আরা সাফা প্রমুখ।
[এমকে]

 

 

 

 

 

 

সূত্র : মানবজমিন অনলাইন পত্রিকা