চীনের ওপর হতাশ ট্রাম্প

29

উত্তর কোরিয়ার অস্ত্র পরীক্ষা থামাতে যথেষ্ট চেষ্টা না করায় চীনকে নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্প টুইটারে বলেন, তিনি উত্তর কোরিয়া নিয়ে চীনের ‘কিছু না করাকে’ মেনে নেবেন না। প্রসঙ্গত, তার এই মন্তব্যের আগের দিনই একটি আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে পিয়ংইয়ং। এক মাসে উত্তর কোরিয়ার দ্বিতীয় আন্তর্মহাদেশীয় ক্ষেপনাস্ত্র উৎক্ষেপন ছিলো এটি। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। খবরে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া দাবি করেছে, এই পরীক্ষা এটা প্রমাণ করে দিয়েছে যে পুরো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রই এখন উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপনাস্ত্রের পরিধির ভেতরে। মার্কিন প্যাসিফিক কমান্ড জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার এই ক্ষেপনাস্ত্র উৎক্ষেপণের পরদিনই জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে দু’টি মার্কিন বি-১ বোমারু বিমান কোরিয়ান উপদ্বীপের উপর দিয়ে অনুশীলন চালিয়েছে। এটা যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদের প্রতি দেশটির দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধতার প্রদর্শন ছিলো বলেও জানিয়েছেন প্যাসিফিক কমান্ড। একইদিনে চীন উত্তর কোরিয়ার এই উৎক্ষেপণের প্রতি নিন্দা জানিয়েছে এবং উভয় পক্ষকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু বেইজিংয়ের এমন জবাবের বদলে ট্রাম্প শুধু হতাশাই প্রকাশ করেছেন । দুটি পরপর টুইটে তিনি বলেন, আমি চীনের ওপর খুবই হতাশ। আমাদের অতীতের বোকা নেতারা তাদেরকে বছরে শত শত কোটি ডলার অর্জনের সুযোগ করে দিয়েছে। তবুও তারা আমাদের জন্যে উত্তর কোরিয়া নিয়ে কিছুই করছেনা। শুধু কথাতেই যা।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এসব আর মেনে নেবোনা। চীন চাইলে সহজেই এই সমস্যাটির সমাধান করতে পারে।’
এ বছরের শুরুর দিকে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে উত্তর করিয়া নিয়ে আলোচনা করেছিলেন ট্রাম্প। ওই আলোচনার মার্কিন কর্মকর্তারা বলেন, উভয় দেশই পিয়ংইয়ং নিয়ে কি করা যায় সে বিষয়ে বেশকিছু অপশন বিবেচনা করছে। কিন্তু তারপর থেকে এখন পর্যন্ত দু’টি আইসিবিএম(ইন্টার কন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক মিসাইল) পরীক্ষা চালিয়েছে।