চেলসিকে হারিয়ে কমিউনিটি শিল্ড আর্সেনালের

25

শ্বাসরুদ্ধকর টাইব্রেকারে চেলসিকে ৪-১ গোলে হারিয়ে কমিউনিটি শিল্ডের শিরোপা জিতলো আর্সেনাল। গত মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপাজয়ী হিসেবে চেলসি আর এফএ কাপের শিরোপাজয়ী হিসেবে আর্সেনাল এবার কমিউনিটি শিল্ডের শিরোপার লড়াইয়ে মাঠে নামে। ঐতিহ্যবাহি ওয়েম্বলিতে নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা ১-১ গোলে শেষ হয়। এতে শিরোপা নির্ধারনের জন্য টাইব্রেকারে গড়ায় ম্যাচ। টাইব্রেকারের নতুন পদ্ধতি ‘এবিবিএ’ প্রয়োগ করা হয় সেখানে। ইংলিশ ফুটবলে এই মৌসুম থেকে শুরু হয়েছে টাইব্রেকারের নতুন এই পদ্ধতি। এদিন টাইব্রেকারে আগে কারা শট নেবে তা নির্ধারন করা হতো টসের মাধ্যমে। টসে জয়ী দল প্রথম শট নিতো। এরপর দ্বিতীয় দল নিতো নিজেদের প্রথম শট। এরপর আবার শট নিতে আসতো প্রথম দল। এরপর আবার দ্বিতীয় দল। কিন্তু নতুন পদ্ধতিতে টসে জয়ী দল প্রথম শট নেয়ার পর দ্বিতীয় দল টানা দুই শট নেবে। এরপর প্রথম দল নেবে নিজেদের দ্বিতীয় ও তৃতীয় শট নেবে। এই পদ্ধতিকে বলা হচ্ছে ‘এবিবিএ’। দ্বিতীয় দলের ওপর চাপ কমাতে এই পদ্ধতির প্রবর্তন করা হয়েছে। বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টে এই পদ্ধতির টাইব্রেকার হয়েছে। কিন্তু ইংলিশ ফুটবলে ২০১৭-১৮ মৌসুম থেকে শুরু হয়েছে। আর প্রথম এমন লড়াইয়ে আর্সেনালের কাছে হেরে গেলো প্রিমিয়ার লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসি। এদিন টাইব্রেকারে চেলসির হয়ে প্রথম শটে গোল করেন গ্যারি ক্যাহিল। এরপর আর্সেনালের হয়ে নিজেদের প্রথম ও দ্বিতীয় শটে গোল করেন যথাক্রমে থিও ওয়ালকট ও মনরেয়াল। এতে গানাররা এগিয়ে যায় ২-১ গোলে। এরপর চেলসির হয়ে দ্বিতীয় শট নে গোলরক্ষক থিবো কুর্তোয়া। কিন্তু বল পাঠিয়ে দেন ক্রসবারের ওপর দিয়ে। চেলসির হয়ে পরের শট নেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে এবার দলে ভেড়ানো আলভারো মোরাতা। কিন্তু কুর্তোয়ার পর তিনিও গোল মিস করেন। এরপর আর্সেনালের হয়ে অক্সলেইড চেম্বারলাইন ব্যবধান ৩-১ করেন। আর নিজেদের চতুর্থ শটে আর্সেনালের বড় জয় নিশ্চিত করেন অলিভিয়া জিরু।
আর্সেনালের এই জয়ে সর্বশেষ চার মৌসুমে এফএ কাপজয়ী জল কমিউনিটি শিল্ড জিতলো। এরমধ্যে তিনবারই জিতলো আর্সেনাল। গত মৌসুমে কমিউনিটি শিল্ডের শিরোপা জেতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে তার আগে ২০১৪ ও ২০১৫- টানা দুইবার শিরোপা জেতে আর্সেনাল। ওই দুইবারও তারা টাইব্রেকারে শিরোপা নিশ্চিত করে। অথচ তার আগে ১৯৯৩ ও ২০০৩ সালে দুইবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কাছে টাইব্রেকারে হারে। অন্যদিকে চেলসি সর্বশেষ চারবার কমিউনিটি শিল্ডে ওঠেও শিরোপা জিততে পারলো না। তারা সর্বশেষ শিরোপা জেতে ২০০৯ সালে পেনাল্টিতে।