জামালপুরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন ॥ ঘাতক স্বামী গ্রেফতার

157

আবুল কালাম আজাদ (জামালপুর প্রতিনিধি) : জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর হাতে স্ত্রী তানিয়া বেগম (২৪) কে খুন করা হয়েছে। ২ জুন বুধবার দুপুরে মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়নের কাজাইকাটা গ্রামের শ্বশুরবাড়ীতে তানিয়া বেগম নামে ২ সন্তানের জননীকে পিটিয়ে খুন করেছে ঘাতক স্বামী আবু তাহের। নিহত তানিয়া মেলান্দহ উপজেলার নয়ানগর গ্রামের হাসান মাহমুদের মেয়ে। এ ঘটনায় স্বামী আবু তাহেরকে গ্রেফতার করেছে মেলান্দহ থানার পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আবু তাহের কাজাইকাটা গ্রামের জনৈক নুর ইসলামের ছেলে।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১২ বছর পূর্বে মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের প্রেম করে তানিয়া বেগমকে বিয়ে করেন। বিয়ে পর থেকে আবু তাহের তানিয়া বেগমকে নানা অজুহাতে প্রায়ই মারধর করতো। এদিকে বুধবার দুপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে পাষন্ড স্বামী আবু তাহের স্ত্রী তানিয়া বেগমকে লাঠি দিয়ে বেদম পেটায়। সেই নির্যাতনের এক পর্যায়ে তানিয়া বেগম মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। পরে এলাকার লোকজন ও শ্বশুর বাড়ীর লোকজনদের না জানিয়ে বিকালে দাফন কাফনের প্রস্তুতি নেয় স্বামী আওয়ামীলীগ নেতা আবু তাহের। এমন পিটিয়ে হত্যার ঘটনাটি এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়েলে মেলান্দহ থানার পুলিশ বিকেলে ঘটনাস্থল গিয়ে নিহত তানিয়া বেগমের লাশ উদ্ধার এবং সেই সাথে ঘাতক স্বামী আবু তাহেরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নিহত তানিয়া বেগমের চাচী জানান, তানিয়ার শরীরে রক্তাক্ত ফুলা জখম রয়েছে। তানিয়া বেগমকে হত্যা করে তার স্বামী আবু তাহের আমাদেরকে না জানিয়ে তড়িঘড়ি করে দাফন করতে চেয়ে ছিল। ভাতিজি তানিয়া বেগমকে হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই। প্রশাসনের কাছে হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

মেলান্দহ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মায়নুল ইসলাম জানান, তানিয়া বেগমের মৃতদেহের সুরতহাল রির্পোট তৈরি শেষে ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে মেলান্দহ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।