ঝিনাইগাতীতে বাল্যবিয়ে থেকে রেহাই পেলো কিশোরী

27

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলায় ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া ১৩ বছরের শিক্ষার্থীর বিয়ে আটকে দিলো উপজেলা প্রশাসন। সোমবার দুপুরে উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের ডেফলাই গ্রামে এই বাল্যবিয়ের আয়োজন করা হয়।

আয়োজিত বিয়েতে বর কনের কেউই প্রাপ্তবয়ষ্ক ছিলো না। ১৩ বছরের কনের বিপরীতে বরের বয়স ছিল ১৮। এমন বিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এজেডএম শরীফ হোসেনের নির্দেশে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফ্লোরা ইয়াসমিন ঘটনাস্থলে যান এবং বিয়ে বন্ধ করতে সক্ষম হন। এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন চাঁন উপস্থিত ছিলেন।

মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফ্লোরা ইয়াসমিন জানান, ‘ ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ে দিবেন না এমন অঙ্গীকার নামা নেয়া হয়েছে তার মায়ের কাছ থেকে।’

এদিকে এর আগেও দুটি বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে।