ঢাকায় গ্রেপ্তারের পর রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থী নেতা নিহত

31

ঢাকায় গ্রেপ্তারের পর রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে ‘অস্ত্র উদ্ধার অভিযানের’ মধ্যে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থী দলের এক নেতার নিহত হওয়ার খবর দিয়েছে পুলিশ। উপজেলার চর দৌলন্দী এলাকায় বৃহস্পতিবার ভোরে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের দাবি।
নিহত করম আলী (৩৮) পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির (লাল পতাকা) আঞ্চলিক কমান্ডার। তিনি দেবগ্রাম ইউনিয়নের তেনাপচা গুচ্ছগ্রামের কোব্বাদ শেখের ছেলে। করমের বিরুদ্ধে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় হত্যা, অবৈধ অস্ত্ররাখাসহ বিভিন্ন অভিযোগে পাঁচটি মামলা রয়েছে বলে ওসি জানান। গতকাল বুধবার ঢাকার হেমায়েতপুর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি এ কে আজাদ জানান, বুধবার বিকালে ঢাকার হেমায়েতপুর থেকে করমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তার দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ভোর সাড়ে ৩টার দিকে করমকে সঙ্গে নিয়ে চর দৌলন্দী গ্রামে অস্ত্র উদ্ধারে যায় গোয়েন্দা পুলিশ ও গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশের একটি দল। সেখানে স্থানীয় আমজাদ আলীর বাড়ির কাছে ওঁৎ পেতে থাকা চরমপন্থিরা পুলিশের দিকে গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্ট গুলি করলে কিছুক্ষণ গোলাগুলি চলে। সে সময় করম আলী গুলিবিদ্ধ হয়। পরে গোয়ালন্দ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

তিনি আরও বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি একনলা বন্দুক ও একটি ওয়ারশুটার গান উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন এবং তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য করমের লাশ রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Advertisement
Print Friendly, PDF & Email
sadi