তিস্তার গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে বিদ্যালয়

41

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তিস্তার গর্ভে চলে যাচ্ছে চিলাখাল চর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এখন পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটি রক্ষার্থে সরকারিভাবে কোন বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। স্কুল কমিটির সভাপতি ও শিক্ষকদের সহযোগিতায় বিদ্যালয় রক্ষায় মাটি ভরাট করা হচ্ছে।
স্কুল কতৃপক্ষ জানান, উপজেলার কোলকোন্দ ইউনিয়নের চিলাখাল চর সরকারি বিদ্যালয়টি চর এলাকায় শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর একটি অন্যতম প্রতিষ্ঠান। এ বিদ্যালয়ে বর্তমানে ১৮৫ জন কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছে। তিস্তার পানি বর্ষা মৌসুমে দফায় দফায় বৃদ্ধি পেলে বিদ্যালয় এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়। আধাপাকা টিনসেডের ৩টি ঘরের অর্ধেক তিস্তার গর্ভে গেলেও বাকিটা ভাঙনে তছনছ হয়েছে। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের পাঠদান অব্যাহত রেখেছেন পাশে খোলা আকাশের নিচে।
এদিকে বিদ্যালয় কমিটির সভাপতি জয়নাল মিয়া তিস্তার ভাঙন থেকে বিদ্যালয়টি পুনরুজ্জীবিত করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং সহ-সভাপতি মিলে এ পর্যন্ত ৫৫ হাজার টাকার মাটি ভরাটের কাজ করেছেন।
প্রধান শিক্ষক আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, বর্ষায় তিস্তায় বিদ্যালয় ভেঙে গেলে পাঠদানে অনুপোযোগী হয়। শিক্ষার্থীদের পাঠদান অব্যাহত রাখতে বিকল্প ব্যবস্থায় খোলা আকাশের নিচে পড়াতে হচ্ছে। সরকারি সহযোগিতা না পেলে বিদ্যালয়টি রক্ষা সম্ভব হবে না।