দুই জেলায় সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ৭

25

পাবনা ও ফরিদপুরে পৃথক দুইটি সড়ক দূর্ঘটনায় সাতজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন রাশেদ কবিরও রয়েছেন। শুক্রবার রাত দূর্ঘটনা দুইটি ঘটে। নিহতরা হলেন- করিম গাজী (৫৪), তার মেয়ে খাইরুন বিবি (৩৫), নাজমুল গাজী (৪০), তার স্ত্রী আসিফা বেগম (৩৪), মাইক্রোবাসের চালক আনিসুর রহমান (২৫) ও তার ভাগনে জাহিদ হাসান (১৮)। রাত সাড়ে ১০টায় ফরিদপুরের মধুখালীর কাজির রাস্তা এলাকায় বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়। পরে হাসপাতালে নেয়ার পর আরও তিনজন মারা যায়। নিহতরা সবাই মাইক্রোবাসের যাত্রী। এবিষয়ে মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আমিন বলেন, ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের মধুখালীর কাজীর রাস্তা নামক স্থানে ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহনের সঙ্গে যশোরগামী একটি মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনায় প্রথমে তিনজন পরে হাসপাতালে নিলে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়। এদিকে ঢাকা থেকে পাবনা যাওয়ার পথে বেড়া উপজেলায় চাকলা এলাকায় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বাসটি খাদে পড়ে গেলে নিহত হন রাশেদ কবির। এসময় আরও ১০জন আহত হয়। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এবিষয়ে পাবনার সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু মো. দিলওয়ার হাসান ইনাম বলেন, ঢাকা থেকে পাবনাগামী সরকার ট্রাভেলসের একটি বাস খাদে পড়ে গেলে এ দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরপরই ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরাসহ আমরা উদ্ধার কাজ শুরু করি। আহত রাশেদ কবিরকে হাসপাতালে নেয়া হলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকীদের চিকিৎসা চলছে।