নওয়াজ শরীফ ও পরিবারকে সাতদিনের মধ্যে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ

22

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে দায়েরকৃত দুর্নীতি মামলার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় জবাবদিহিতা ব্যুরো (এনএবি)। এজন্য তাদের ২৬শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাতদিন সময় দেয়া হয়েছে। হাজির হওয়ার ব্যাপারে আদালতের এ নির্দেশ লন্ডনে অবস্থানরত নওয়াজ শরীফের পরিবারের নিকট পৌঁছানোর ব্যাপারেও আদেশ দিয়েছে এনএবি। নওয়াজের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ ও তার স্বামী ক্যাপ্টেন মুহাম্মদ সাফদার সোমবার পরিবারের বাকি সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে লন্ডন গেছেন। এ খবর দিয়েছে পাকিস্তানের অনলাইন ডন। খবরে বলা হয়, এনএবি’র প্রসিকিউটর আদালতকে জানিয়েছেন শরীফ পরিবারের কয়েকটি বাড়িতে তাদের প্রবেশের অনুমতি নেই। বাড়ির গার্ডের হাতে সমন দিয়ে আসতে হয়। এছাড়া নওয়াজ শরীফের দুই ছেলে হাসান ও হোসেন নওয়াজ এ সমন গ্রহণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। নওয়াজের দল পিএমএল-এন নেতা আসিফ কিরমানি বলেন, নওয়াজ পরিবারের সবাই অসুস্থ কুলসুম নওয়াজকে দেখতে লন্ডন যাওয়ার কারণে তারা কেউ আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি। আগামী কয়েকদিনে কুলসুম নওয়াজের আরেকটি অস্ত্রোপচার করা হতে পারে। তাই তাদের দেশে ফেরার ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। আসিফ কিরমানি বলেছেন, শরীফ পরিবারের কেউ আদালতে হাজির হবেন না। শরীফ পরিবারের ঘনিষ্ঠ এ নেতা বলেন, নওয়াজ ও তার সন্তানরা জবাবদিহি করতে আদালতের সম্মুখীন হবেন না। তারা সবাই আদালতের কার্যক্রম এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। গত মাসে কয়েকটি মামলার ব্যাপারে তদন্তের জন্য তলব করা হলেও শরীফ পরিবার ও অর্থমন্ত্রী ইশাক দারের কেউই এনএবি’র কার্যালয়ে উপস্থিত হননি। এদিকে, একজন এনএবি কর্মকর্তা বলেছেন, আদালতের সমন গ্রহণ করার পরেও যদি শরীফ পরিবারের কেউ আদালতে উপস্থিত না হন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে জামিনযোগ্য বা অজামিনযোগ্য প্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হতে পারে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সূত্র : মানবজমিন অনলাইন পত্রিকা