নকলায় বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

297

মো. মোশারফ হোসাইন: শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নূরে আলম (৩২) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পাবনার র‌্যাব-১২। ১৪ জানুয়ারি মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নকলা পৌর শহরের বাজারদী এলাকার আবু বক্কর সিদ্দিকীর স্যানেটারী দোকানের সম্মুখে নকলা-চন্দ্রকোনা সড়ক থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নূরে আলম কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার মহিলা কলেজপাড়া এলাকার জনৈক সুলতান আলমের ছেলে। গ্রেফতারের পরে রাতেই নূরে আলমকে নকলা থানায় সোপর্দ করেছে পাবনার র‌্যাব-১২।

নকলা থানার পুলিশ ও র‌্যাব-১২ সূত্রে জানা গেছে, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২ (পাবনা) সিপিসি-২ এর এএসপি আমিনুল কবির তরফদারের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে ৩ হাজর ৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ২টি সচল মোবাইল ও তিনটি মোবাইলের সীমসহ নূরে আলমকে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-১২ এর এসআই সামিউল হক জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নূরে আলম একজন পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী বলে স্বীকার করেছে। সে নিজ এলাকা থেকে ইয়াবা ট্যাবলেট গুলো বিক্রির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে কৌশলে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নকলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন শাহ বলেন, র‌্যাবের হাতে গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী নূর আলমকে অভিযোগসহ থানায় সোপর্দ করেছে র‌্যাব-১২ কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে নকলা থানায় একটি নিয়মিত মামলা হয়েছে। বুধবার নূরে আলমকে শেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হবে। তিনি আরো জানান, গ্রেফতারকৃত নূর আলম এ ইয়াবা ট্যাবলেট গুলো বিক্রির উদ্দেশ্যে হয়তোবা অন্য কোন এলাকায় নিয়ে যাচ্ছিলো। তবে এই কারবারির সাথে নকলার কেউ জড়িত আছে কি-না তা নূরে আলমকে জিজ্ঞাসায় ও তদন্তের মাধ্যমে বের করা হবে এবং নকলার কেউ জড়িত থাকলে তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে ওসি আলমগীর হোসেন শাহ জানান।

র‌্যাব-১২ এর এএসপি আমিনুল কবির তরফদার জানান, নূরে আলম একজন পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী। বেশ কিছু দিন ধরে তাকে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-১২ কাজ করে আসছিলো। অবশেষে র‌্যাব সদস্যরা ইয়াবা ট্যাবলেটের ক্রেতা সেজে তাকে র‌্যাবের জালে ফেলে আটক করতে সক্ষম হন। নূরে আলমের কাছে জব্দকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের অনুমানিক মূল্য ১৫ লাখ ২৫ হাজার টাকা হবে বলে তিনি জানান।

Facebook Comments