নকলায় মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা

108

মো. মোশারফ হোসাইন : শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় মায়ের সাথে অভিমান করে মীম আক্তার (১২) নামে ৭ম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী ৭ এপ্রিল বুধবার সকালে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মীম আক্তার নকলা উপজেলার বানেশ্বরর্দী ইউনিয়নের বাউসা গ্রামের জনৈক রফিকুল ইসলামের মেয়ে এবং বাউসা দিশারী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলো। তবে কি কারণে মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে তা এখনও জানা যায়নি।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষার্থী মীম আক্তার বুধবার সকালে তার শয়ন কক্ষে সাবার অজান্তে ঘরের ধর্নার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। স্থানীয়রা জানান, মীম আক্তার তার মায়ের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে।

নকলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুশফিকুর রহমান বিষয়টি সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় মীম আক্তারের লাশ উদ্ধার করেছে। তবে কি কারণে আত্মহত্যা করেছে তা জানা যায়নি। ময়না তদন্তের জন্য মীম আক্তারের লাশ শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এব্যাপারে নকলা থানায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।