নামকরণের শীর্ষে মুহাম্মদ

23

ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে বাচ্চাদের নামকরণে সবার শীর্ষ বাছাই মুহাম্মদ। আগে ছিল উইলিয়াম। তাকে টপকে মুহাম্মদ নামটিই শীর্ষে অবস্থান করছে। ইংরেজিতে এ নামটি বিভিন্ন রকম বানান লেখা হয়। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। এতে বলা হয়, গত এক দশকে মুহাম্মদ নামটি ৩৫ ধাপে অগ্রগতি হয়েছে। গত বছর জন্মগ্রহণকারী ৩ হাজার ৯০৮ টি ছেলে বাচ্চাকে এ নাম দেয়া হয়েছে। ওদিকে মেয়েদের নামের শীর্ষে রয়েছে অলিভিয়া। এর আগে শীর্ষে ছিল আমেলিয়া। শিশুদের নামের কদর কি রকম, কোন নামটি বেশি জনপ্রিয় তা যাচাই করতে একটি তালিকা করেছে অফিস অব ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিকস (ওএনএস)। প্যারেন্টিং সাইট চ্যানেল মাম ডট কমের প্রতিষ্ঠাতা সিওভান ফ্রিগার্ড বলেছে, বহু নবাগত ছেলে বাচ্চার নাম রাখা হচ্ছে দূর থেকে দূরের গ্যালাক্সি থেকে নেয়া নামে। এর মধ্যে ফোর্স অ্যাওয়াকেনস থেকে নেয়া ফিন এবং স্টার ওয়ারস রিবেলস থেকে নেয়া এজরা নাম দুটির জনপ্রিয়তা দুই অংকে উঠে গেছে। ফ্রিগার্ড বলেন, মহাজাগতিক ও প্রাকৃতিক নামগুলোই দ্রুততার সঙ্গে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে মেয়ে শিশুর নামকরণের ক্ষেত্রে। গেম অব থর্নস-এর থেকে নেয়া আরিয়া নামটিও ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। তবে এক্ষেত্রে আধুনিক পিতামাতা নামের বানানটা একটু পাল্টে দিচ্ছেন। তাতে নতুনত্ব দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। চাঁদের সঙ্গে মিল রেখে লুনা নামটিও জনপ্রিয় হচ্ছে। তা এক লাফে ৫২ তম স্থানে চলে এসেছে। এ ছাড়া তালিকায় রয়েছে উইলো, আইরস ও আইভি’র মতো নাম। এখানে উল্লেখ্য, ২০০৬ সাল থেকে মেয়ে ও ছেলে বাচ্চাদের নামকরণের জনপ্রিয় ১০টি নামের মধ্যে অর্ধেক নামই ছেলেদের। তরে রাজকীয় নাম চার্লটি ও জর্জ নামের জনপ্রিয়তা রয়েছে। ছেলে শিশুদের নামকরণে জর্জ রয়েছে তৃতীয় সবচেয়ে জনপ্রিয় স্থানে। অন্যদিকে চার্লটি রয়েছে শীর্ষ দশের কাছাকাছি, ১২ নম্বর অবস্থানে। এখানে উল্লেখ্য, জর্জ হলো প্রিন্স উইলিয়াম ও প্রিন্সেস কেট মিডলটনের ছেলে। চার্লটি হলো তাদের মেয়ে। গত বছর বেথানি, হোলি, ক্যাটি ও ল্যাসি নামগুলো সরিয়ে দিয়ে শীর্ষ একশত মেয়ে শিশুর নামে প্রবেশ করে ফেলিসিটি, আইরিস, লুনা ও লিডিয়া।

 

 

 

 

 

 

 

সূত্র : মানবজমিন অনলাইন পত্রিকা