নিজেকে ছাড়িয়ে গেলেন মেসি

26

নিজেই নিজেকে ছাড়িয়ে বিরল মাইলফলক স্পর্শ করলেন লিওনেল মেসি। স্প্যানিশ লা-লিগায় মঙ্গলবার তিনি করলেন এক হালি গোল। তার দুর্দান্ত নৈপুণ্যে এইবারকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। এতে লা-লিগার চলতি মৌসুমের শুরুর পাঁচ ম্যাচে ৯ গোল করলেন মেসি। বার্সেলোনার হয়ে মৌসুমের প্রথম পাঁচ ম্যাচে এর আগে সর্বোচ্চ ৮ গোল ছিল মেসির। সেটা ছিল ২০১১-১২ মৌসুমের ঘটনা। কিন্তু এবার নিজেকে টপকে গেলেন। লা-লিগায় মৌসুমের প্রথম পাঁচ ম্যাচে এরচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ড আছে। প্রুডেন মার্সেলিনো ও পাহিনো- দু’জনই করেন ১০টি করে গোল। এখন পর্যন্ত লা-লিগায় সেটাই রেকর্ড।
রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে গোলহীন থেকে চলতি মৌসুম শুরু করেন মেসি। তবে পরের দুই ম্যাচে দেপোর্তিভো আলাভেজ ও এস্পানিওলের বিপক্ষে যথাক্রমে জোড়া গো ও হ্যাটট্রিক করেন। চতুর্থ ম্যাচে গেটাফের বিপক্ষে ছিলেন গোলশূন্য। কিন্তু সর্বশেষ পঞ্চম ম্যাচে এইবারের বিপক্ষে করলেন চার গোল। এতে চলতি মৌসুমে লা-লিগায় ৯ ও মোট মিলিয়ে করলেন ১০ গোল। এদিন আরেকটি মাইলফলক স্পর্শ করেছেন মেসি। বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্পে এদিন তিনি ৩০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করলেন। এই মাঠে মেসি প্রথম গোল করেন ২০০৫ সালের ১লা মে আলবাকেটের বিপক্ষে। তারপর ৪,৫২৪ দিন পর করলেন তার ৩০০তম গোল। এরমধ্যে ন্যু ক্যাম্পে তিনি সবচেয়ে বেশি ১৫ গোল করেছেন এস্পানিওলের বিপক্ষে। এছাড়া অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, সেভিয়া ও ওসাসুনার বিপক্ষে করেছেন ১৪টি করে গোল। ন্যু ক্যাম্পে এখন মেসির মোট গোল ৩০২।
এইবারের বিপক্ষে ম্যাচের ২০ মিনিটে পেনাল্টিতে বার্সাকে এগিয়ে দেন মেসি। এরপর ৩৮ মিনিটে ডেনিস সুয়ারেজের পাস থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন পাউলিনহো। নবাগত ব্রাজিলের এ মিডফিল্ডার এই নিয়ে টানা দুই ম্যাচে গোল পেলেন। এরপর ৫৩ মিনিটে বার্সেলোনাকে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে ডেনিস সুয়ারেজ। ৫৭ মিনিটে ব্যবধান কমায় এইবার। কিন্তু এরপর টানা তিন গোল করেন মেসি। ৫৯, ৬২ ও ৮৭ মিনিটে নিজের পরের তিন গোল করেন মেসি।