নেইমারহীন প্রথম ম্যাচে বার্সার গোল উৎসব

37

ক’দিন আগে বার্সেলোনা ছেড়েছেন নেইমার। যোগ দিয়েছেন ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে (পিএসজি)। লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ ও নেইমারকে নিয়ে বার্সেলোনার আক্রমণভাগ পরিচিত ছিল ‘এমএসএন’ নামে। কিন্তু এখন আর সেই নাম নেই। নেইমারকে ছাড়া বার্সেলোনার আক্রমণভাগ কেমন করবে তা নিয়ে দর্শকদের মনে ছিল প্রশ্ন। সে প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেলো সোমবার রাতে। বার্সেলোনা ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হুয়ান গাম্পারের নামে প্রতি মৌসুমের আগে তারা একটি প্রীতি ম্যাচের আয়োজন করে। এবার ন্যু ক্যাম্পে তারা স্বাগত জানায় ব্রাজিলের ক্লাব শাপেকোয়েন্সকে। গত বছর বিমান দুর্ঘটনায় তাদের ১৯ খেলোয়াড়-কর্মকর্তাসহ মোট ৭১ জন নিহত হয়। শাপেকোয়েন্সের নিহত খেলোয়াড়দের প্রতি সম্মান দেখাতে এবার বার্সেলোনা তাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে। তবে মাঠের খেলায় ব্রাজিলের ক্লাবটিকে উড়িয়ে দিলো বার্সেলোনা। নেইমারহীন দলটি জিতলো ৫-০ গোলে। নেইমারের জায়গায় এদিন বার্সেলোনায় খেলানো হয় স্পেনের ২৩ বছর বয়সী উইঙ্গার জেরার্ড ডলোফেউকে। যাকে এ মৌসুমে এভারটন থেকে কিনেছে কাতালানের ক্লাবটি। বার্সেলোনার হয়ে প্রথম ম্যাচেই দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখালেন। নেইমারের অনুপস্থিতি বুঝতেই দিলেন না। ম্যাচের ষষ্ঠ মিনিটে জেরার্ডের গোলেই এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। এর পাঁচ মিনিট বাদে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জিও বুসকেটস। আর ২৮ মিনিটে ব্যবধান ৩-০ করেন লিওনেল মেসি। এরপর ৫৫মিনিটে বার্সেলোনার গোলের হালি পূরণ উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। আর ৭৪ মিনিটে কাতালানের ক্লাবটির বড় জয় নিশ্চিত করেন ডেনিস সুয়ারেজ। শাপেকোয়েন্সের বহনকারী বিমান দুর্ঘটনার পরও বেঁচে থাকা খেলোয়াড় অ্যালান রাশেল এদিন শুরুতেই মাঠে নামেন। খেলেন ৩৫ মিনিট। এছাড়া বেঁচে যাওয়া ডিফেন্ডার নেতোও এদিন মাঠে ছিলেন। সতীর্থদের স্মরণে তিনি মাঠেই কেঁদে ফেলেন। শাপেকোয়েন্স চলতি মৌসুমের শুরুতে নতুন ২৫ জন খেলোয়াড়কে দলে ভিড়িয়েছে। যুদ দল থেকে সিনিয়র দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে আরো ৯ খেলোয়াড়কে।