নোয়াখালীর ভাষা শিখছেন বুবলী

65

শবনম বুবলী। চলচ্চিত্রে গত বছর অভিষেকের পরই বেশ নাম কামিয়েছেন তিনি। ছবির প্রযোজক ও নির্মাতারা তার সঙ্গে নতুন ছবি নিয়ে কথা বলছেন। ক্যারিয়ারের শুরুতেই ঢাকাই ছবির শীর্ষনায়ক শাকিব খানের বিপরীতে ‘বসগিরি’ও ‘শুটার’ নামে দু’টি ছবি মুক্তি পায় তার। ছবি দু’টি দর্শকপ্রিয়তা পাওয়ার পর আবারও দু’টি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়ে কাজ শুরু করেন বুবলী। ছবি দু’টির নাম ‘অহংকার’ ও ‘রংবাজ’। দু’টি ছবিই আসছে ঈদে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। এর বাইরে নতুন একটি ছবিতে সমপ্রতি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বুবলী। খবরটি গতকাল জানান তিনি মানবজমিনকে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, নতুন ছবি করতে যাচ্ছি। ছবির নাম ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়্যা’। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার ব্যানারে এটি নির্মাণ করবেন উত্তম আকাশ। নোয়াখালী আমার গ্রামের বাড়ি হলেও জন্ম ও বেড়ে ওঠা আমার ঢাকায়। কখনো এই ভাষা বলা হয়নি। তাই এখন বাবা ও মায়ের কাছ থেকে এই ভাষা শেখার প্র্যাকটিস করছি। আশা করছি, ছবির শুটিংয়ের আগে এই ভাষা রপ্ত করতে পারব। আর দর্শক আমাকে পর্দায় নোয়াখালীর মেয়ে হিসেবেই পাবে। এ ছবিতেও শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করতে দেখা যাবে বুবলীকে। খুব শিগগিরই এর শুটিং শুরু হবে বলে জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। এদিকে, আসছে ঈদে মুক্তি পেতে যাওয়া শাহাদৎ হোসেন লিটন পরিচালিত ‘অহংকার’ও আবদুল মান্নানের ‘রংবাজ’ ছবি দু’টি নিয়েও সমান আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বুবলী। তিনি বলেন, দুইটা ছবি নিয়েই আমি বেশ আশাবাদী। আর দু’টি ছবি দুই ধরনের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে। তাই দর্শক বিরক্ত হবে না। ‘অহংকার’ ছবিটি দেশের বিভিন্ন জায়গায় শুটিং হলেও ‘রংবাজ’ ছবির গানের শুটিং হয়েছে ইতালি ও সুইজারল্যান্ডে। তাই এ ছবির গানে দর্শক নতুনত্ব পাবেন বলেও জানিয়েছেন বুবলী।