পশ্চিমবঙ্গের সব স্কুলে বাংলা পড়াতেই হবে

43

পশ্চিমবঙ্গের সব স্কুলে এক থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত বাংলা পড়াতেই হবে। তিনটে ভাষার মধ্যে বাংলা হবে আবশ্যিক। ঐচ্ছিক বিষয় হিসেবে পড়ালেও বাংলা পড়তেই হবে। বুধবার টাউন হলে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই কথা জানিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আগামী বছর থেকেই এই নীতি চালু হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে অনেক ইংরেজি মাধ্যম বেসরকারি স্কুলেই বাংলা পড়ানো হয় না বা কোনও গুরুত্ব দেওয়া হয় না। এদিন বৈঠকের শুরুতেই রাজ্যের ত্রিভাষা নীতি চালুর বিষয়টি উত্থাপন করে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, আমরা স্কুলগুলিতে তিনটি ভাষা পড়া আবশ্যিক করার নীতি নিয়েছি। ভারতের অন্যান্য রাজ্যেও প্রাদেশিক ভাষা বাধ্যতামূলকভাবে পড়ানোর আইন রয়েছে। জোর করে কিছু চাপাতে চাই না। কে কী নিয়ে পড়বে সেটা তার নিজস্ব ব্যাপার। কিন্তু বাংলায় থাকবে অথচ বাংলা শিখবে না, এটা কী করে হয় ?  নিজের মাতৃভাষা, স্থানীয় ভাষা বলতে, লিখতে পারবে না, এটা হতে পারে না। আমরা বলছি তিনটে ভাষার মধ্যে একটা বাংলা থাকুক। প্রথম ভাষা হিসেবে ইংরেজি নিলে, দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে হিন্দি, নেপালি, অলচিকি, গুরুমুখী, উর্দু নিতে পারবে। কিন্তু আরেকটি ভাষা হিসেবে বাংলা দশম শ্রেণী পর্যন্ত বাংলা পড়তেই হবে। তবে এক প্রশ্নের উত্তরে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বাংলাকে ভাষা হিসেবে দশম শ্রেণী পর্যন্ত স্কুলে পড়ান। আইসিএসই বা সিবিএসইবোর্ডের পরীক্ষার দরকার নেই। স্কুল পরীক্ষা নিক। তিনি বলেছেন, ছেলেমেয়েরা যত ভাষা জানবে ততই ভাল। কিছুদিন আগেই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি জানিয়েছিলেন, ইংরেজি মাধ্যমসহ রাজ্যের সব স্কুলেই এবার থেকে বাংলা পড়তেই হবে। রাজ্য বিধানসভায় আইন তৈরি করে সরকারের এই নীতি কার্যকর করা হবে।