‘বস টু’ ছবিতে মানা হয়নি যৌথ প্রযোজনার নিয়ম!

39

‘বস টু’ ছবিতে শিল্পী নেয়ার ক্ষেত্রে মানা হয়নি যৌথ প্রযোজনার নিয়ম। এমন আভিযোগ উঠেছে ছবিটিকে ঘিরে। সম্প্রতি চলচ্চিত্র ঐক্যজোটের পক্ষ থেকে সেন্সর প্রিভিউ কমিটিকে একটি চিঠি দেয়া হয়। সেই চিঠিতে ‘বস টু’ ছবিটি যৌথ প্রযোজনার যথাযথ নিয়ম মেনে তৈরি হয়েছে কি-না তা খতিয়ে দেখার অনুরোধ জানানো হয়। মঙ্গলবার বিএফডিসিতে সেন্সর প্রিভিউ কমিটি ছবিটি দেখেন। সেসূত্রে এ ছবিটির অধিকাংশ শিল্পী কলকাতার বলে জানা গেছে। এ বিষয়ে সেন্সর প্রিভিউ কমিটির সদস্য নাসিরউদ্দিন দিলু মানবজমিনকে বলেন, দুই দেশের শিল্পীদের মধ্যে সমতা কম মনে হয়েছে আমার কাছে। সবাই মিলে মতামত জানিয়ে দিয়েছি আমরা। এরপর সেন্সরবোর্ড বাকি সিদ্ধান্ত নিবেন। ‘বস টু’ প্রযোজনা করছে বাংলাদেশ থেকে জাজ মাল্টিমিডিয়া। এই প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার আবদুল আজিজ বলেন, তারা অনেক শিল্পীকে চিনতে পারেননি। শিল্পী সমতা রেখেই কাজ করেছেন পরিচালক বাবা যাদব। এদিকে প্রিভিউ কমিটির মতামতে কি এসেছে তা জানা যাবে বুধবার। এদিন বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তপন কুমার ঘোষ চিঠি মারফত সেন্সর কমিটিকে প্রিভিউ কমিটির মতামত পাঠাবেন বলে মানবজমিনকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, চিঠিতে সব উত্তর আছে। কিন্তু কি মতামত সবাই দিয়েছেন তা এখন জানাতে চাইছি না। এজন্য একটু অপেক্ষা করতে হবে। ‘বস টু’ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার জিতস ফিল্মওয়ার্কস প্রাইভেট লিমিটেড। সম্প্রতি প্রকাশিত এ ছবির ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি নিয়েও বেশ সমালোচনা হয়। এ ছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জিৎ, নুসরাত ফারিয়া, শুভশ্রী, অমিত হাসান প্রমুখ। প্রসঙ্গত, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মুক্তি পাওয়ার কথা চারটি বড় বাজেটের ছবি। জানা যায়, এসবের মধ্যে একমাত্র ‘রাজনীতি’ ছাড়া বাকি তিনটিই যৌথ প্রযোজনার। এগুলো হলো ‘বস টু’, ‘নবাব’ ও ‘রংবাজ’।

Advertisement
Print Friendly, PDF & Email
sadi