বাংলাদেশ সফর বাঁচাতে বর্ডারের প্রেসক্রিপশন

29

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর বাঁচাতে এবার পথ দেখালেন সাবেক অধিনায়ক অ্যালান বর্ডার। অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে উদ্ভুত পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল সংবাদমাধ্যম ফক্স স্পোর্টস নিউজকে অ্যালান বর্ডার বলেন, ‘বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের স্বল্পমেয়াদী চুক্তি হওয়া উচিত। তাহলে অস্ট্রেলিয়া দলের আসন্ন সিরিজগুলো নির্বিঘ্নে মাঠে গড়াবে।’ অস্ট্রেলিয়ার ক্যাপ মাথায় ১৫৬ টেস্টের তারকা অ্যালান বর্ডার বলেন, কিছু একটা হওয়া দরকার। আমরা ক্রিকেট দেখতে চাই। আমি মনে করি খেলোয়াড়েরাও মাঠে ফিরতে চায়। তাই বাংলাদেশ সফর ঠিক রাখতে খেলোয়াড়দের সঙ্গে স্বল্পমেয়াদী চুক্তি করতে পারে বোর্ড। আর বাংলাদেশ সফর ও ভারতের বিপক্ষে সিরিজ শেষে বিষয়টি নিয়ে ফের বসতে পারে দু’পক্ষ। বেতন-ভাতা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বের অবসানে সালিশ ডাকারও পক্ষে সাবেক অধিনায়ক অ্যালান বর্ডার। বৃহস্পতিবার অজি বোর্ড ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড বলেন ৭ দিনের মধ্যে সমস্যার সমাধান না হলে সালিশ ডাকবে তারা। তবে পরদিন অজি বোর্ডের এমন চিন্তার বিরোধিতা করে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশনের (এসিএ) বিবৃতিতে বলা হয়, এটা বিচারিক কোনো বিষয় নয়। এ নিয়ে সালিশে বসার দরকার নেই। গতকাল অ্যালান বর্ডার বলেন, যতদূর দেখতে পাচ্ছি বিষয়টিতে যোজন যোজন ব্যবধানে অবস্থান করছে বোর্ড ও খেলোয়াড়েরা। এটা খুবই হতাশাজনক। আপনি মনে করতে পারেন এভাবে এর সমাধান সম্ভব। কিন্তু আমার মনে হয়, সালিশে বসাটাই এর সমাধানের একমাত্র পথ। কারণ দু’পক্ষ একবারে পৃথক অবস্থানে রয়েছে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে আগামী ১৮ই আগস্ট বাংলাদেশের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার কথা অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের। আগামী ২৭শে আগস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে মাঠে নামবে দু’দল। অ্যালান বর্ডার বলেন, আমি জানি বিষয়টিতে খেলোয়াড়রা একজন মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা দেখতে চাইছে শুরু থেকেই। তবে সমাধানের জন্য জেমস সাদারল্যান্ড বিষয়টি নিয়ে আদালতে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেন। ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারকের অধীনে সালিশ বসাতে চাইছে। যা আবার খেলোয়াড়দের পছন্দ নয়। তাহলে সালিশটা করবে কে? বিয়য়টি যে অবস্থায় পৌঁছলো তা হাস্যকর।