ভারতের জয়ে শুরু এশিয়া কাপ হকি

31

দীর্ঘ ৩২ বছর পর আবার এশিয়া কাপের আসর শুরু হলো ঢাকায়। জাপান ভারত ম্যাচের মধ্যদিয়ে বুধবার শুরু হয়েছে এর ময়দানী লড়াই। এশিয়ার সেরা ৮ দলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আহম মোস্তফা কামাল। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, বিমান বাহিনীর প্রধান ও বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সভাপতি এয়ার মার্শাল আবু এসরার, ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক, টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ও সহ-সভাপতি শফিউল্লাহ আল মুনীর, খাজা রহমতউল্লাহ, এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান ও এশিয়ান হকি ফেডারেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তৈয়ব ইকরাম। উদ্বোধনী ম্যাচে ভারত ৫-১    গোলে জাপানকে পরাজিত করে শুভ সূচনা করেছে।
৩২ বছর আগের এবং এবার এশিয়া কাপের পার্থক্য অনেক। ১৯৮৫ সালের টুর্নামেন্ট হয়েছিল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের ঘাসের মাঠে। এবার হবে মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামের নীল টার্ফে। বিশ্বের অনেক দেশ অনেক আগেই টার্ফের সঙ্গে পরিচিত হলেও বাংলাদেশের হকিপ্রেমীদের কাছে তা ছিল কল্পনার বাইরে। তবে বাংলাদেশের হকিও টার্ফের সঙ্গে পরিচয় নতুন নয়। এই তো মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামই দেখেছে দুটি টার্ফ। সবুজ টার্ফটিকে বিদায় দিয়ে দেশের একমাত্র হকি স্টেডিয়াম বুকে ধারণ করেছে নীল টার্ফ। অতিথি সাত দেশের মধ্যে শক্তিতে বাংলাদেশের কাছাকাছি ছিল ওমান আর চীন। কিন্তু দুর্ভাগ্য স্বাগতিকদের এই দুই দেশ পড়েছে অন্য গ্রুপে। বাংলাদেশ পেয়েছে ভারত, পাকিস্তান আর জাপানকে। এ দেশ তিনটি শক্তিতে অনেক এগিয়ে বাংলাদেশের চেয়ে। গ্রুপ পর্বে ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে ভালো খেলা আর জাপানকে হারানোার টার্গেট নিয়েই বাংলাদেশ সব রণকৌশল সাজাচ্ছে।
এশিয়া কাপ হকি ফেডারেশন যেদিন ঢাকাকে দশম আসরের ভেন্যু করার সবুজ সঙ্কেত দিয়ে কিছু শর্ত জুড়ে দিয়েছিলো এশিয়ান হকি ফেডারেশনের কর্মর্তারা। সেদিন থেকেই আয়োজনের দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়ে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের। ফ্লাডলাইট স্থাপন করতে হবে, ডিজিটাল স্কোর বোর্ড বসাতে হবে, প্রেসবক্স, ড্রেসিং রুম, সম্প্রচার কক্ষ, আম্পায়ার্স কক্ষসহ আরও কত কিছু আধুনিক করার তাগিদ। এসব করতে গিয়ে আয়োজক বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের অবস্থা লেজে-গোবরে হলেও সময়মতো এশিয়ান হকি ফেডারেশনের সামনে আধুনিক এক হকি স্টেডিয়াম উপস্থাপন করতে পেরেছে বাংলাদেশ। অপেক্ষার পালা গতকলা মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামের নীল টার্ফে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনের লড়াইয়ে মাঠে নেমেছে দলগুলো।