মেট্রোরেলের পাইলিং কাজ উদ্বোধন

38

মেট্রোরেল প্রকল্পের পাইলিং কাজ উদ্বোধন করলেন সড়ক, পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁও পরিসংখ্যান ভবনের সামনের সড়কে প্রকল্পটির কাজের উদ্বোধন করেন তিনি। শুরুতে ওবায়দুল কাদের মেট্রোরেলের মূল কাজের ফলক উন্মোচন করেন। তারপর নিজেই চেপে বসেন পাইলিং মেশিনে। এসময় পাইলিং মেশিন (রিগে) চালিয়ে পাইলিং করেন মন্ত্রী। পরে তিনি অনুষ্ঠানে অংশ নেন। উদ্বোধনের মাধ্যমে মেট্রোরেলের কাজ একধাপ এগিয়ে গেলো মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটি ঢাকাবাসীর স্বপ্নের প্রকল্প। ঢাকাবাসী এই প্রকল্পের দিকে চেয়ে আছে। স্বপ্নের এই মেট্রোরেল প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে গিয়ে ঢাকাবাসী দুর্ভোগের শিকার হবেন। এটা সহ্য করার জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, ২০১৯ সালে এটা উদ্বোধনের কথা ছিল। কিন্তু হলি আর্টিজানের বর্বরোচিত ঘটনায় প্রকল্পের সাতজন মারা গেছেন। এসব কারণে প্রকল্পের কাজ ৮ মাস পিছিয়ে গেছে। সব ধরনের ঘাত-প্রতিঘাত কাটিয়ে মেট্রোরেল প্রকল্পের কাজ পুরোদমে আবারও শুরু হয়েছে। মেট্রোরেলের স্টেশনে সব ধরনের আধুনিক সুযোগ-সুবিধা থাকবে। এটা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্য দিয়ে গেলে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার কোনো ক্ষতি হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, ঢাকায় আরও দুটি মেট্রোরেল থাকবে। যেগুলোতে আন্ডারগ্রাউন্ড সুবিধাও থাকবে। এই বিষয়ে আমরা ফিজিবিলিটি স্টাডি শুরু করে দিয়েছি।
উল্লেখ্য, মেট্রোরেল লাইন ৬-এর প্রাথমিকভাবে উত্তরা তৃতীয় ফেজ থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ভায়া ডাক্ট ও স্টেশন নির্মাণের মূল কাজ শুরু করা হয়েছে গতকাল। এই অংশের মোট দৈর্ঘ্য ১১ দশমিক সাত কিলোমিটার। এতে নয়টি স্টেশন থাকবে। এই অংশটুকু ২০১৯ সালের মধ্যেই উন্মুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ২৮ জোড়া মেট্রোরেল চলাচল করবে। উত্তরা থেকে মিরপুর-ফার্মগেট হয়ে মতিঝিল পর্যন্ত যাবে এই মেট্রোরেল। ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটিতে জাইকা অর্থায়ন করছে ১৬ হাজার ৫৯৪ কোটি টাকা।