রানের পাহাড় গড়ছে দক্ষিণ আফ্রিকা

20

রানের পাহাড় গড়তে আর বাকি নেই। মাঝের কিচুটা সময় বাদ দিলে সারাদিন সাবলীল ব্যাটিং করেই কাটালেন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা। প্রথম টেস্টের চেয়ে দ্বিতীয় টেস্টে আরো বড় পরীক্ষায় বাংলাদেশের বোলাররা। টসে জিতে ফিল্ডিং করতে গিয়ে সারা দিন বল কুড়িয়েই পার করলেন মুশফিকরা। ৯০ ওভার মোকাবিলা করে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম দিনেই তুলে ফেলেছে ৪২৮ রান। এতে খুঁইয়েছে তারা মাত্র তিন উইকেট। শনিবার প্রথম সেশনেই তারা স্কোর ৬০০ রানের কাছাকাছি নিয়ে যেতে পারবে তা নিশ্চিত বলা যায়। প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে রান তোলার গতি অনেক কম ছিল। হাশিম আমলা আর ফাফ ডু প্লেসি অপরাজিত থেকেই দিন শেষ করলেন। ২৮তম শতরানের জন্য হাশিম আমলার বাকি আর ১১ রান। ডু প্লেসি অপরাজিত ৬২ রানে। প্রথম দিনে কোন ছক্কা হাঁকাতে না পারলেও প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা সীমানার বাইরে বল পাঠান ৫৮ বার। বাংলাদেশের আট জন বোলার বল করেছেন এ সময়।
এবার শতরানের জুটি আমলা-ডু প্লেসির
অল্প বিরতিতে তিন উইকেট খুইয়ে একটু টালমাটাল দেখাচ্ছিল প্রোটিয়াদের। তবে চতুর্থ উইকেটে শতরানের জুটি গড়লেন হাশিম আমলা ও ফাফ ডু প্লেসি। এতে দিনের ১০ ওভার বাকি রেখে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৮৮/৩-এ।
দিনের ৫৩.৩ ওভারে উইকেটশুন্য ছিলেন টাইগাররা। তবে পরের ৭.৪ ওভারের স্পেলে তিন উইকেট তুলে নেন তারা। দিনের ৫৪তম ওভারে প্রথম উইকেটের মুখ দেখে বাংলাদেশ। ৫৩.৪তম ওভারে প্রোটিয়া ওপেনার ডিন এলগারকে সাজঘরে ফেরান টাইগার পেসার শুভাশিষ রায়। অপর পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের হাতে ক্যাচ দেন এলগার। এতে ভাঙে ২৪৩ রানে জুটি।  নিজের উইকেট দেয়ার আগে ১৫২ বলে ১১৩ রানের  ইনিংসে এলগার হাঁকান ১৭টি বাউন্ডারি।  ৫৮.৪তম ওভারে প্রোটিয়া অপর ওপেনার মার্করামকে সরাসরি বোল্ড করেন পেসার রুবেল হোসেন। মার্করাম করেন ১৪৩ রান। আর নিজের দ্বিতীয় শিকারে ৬১.২তম ওভারে টেম্বা বাভুমাকে সাজঘরে ফেরান শুভাশিষ।
পচেফস্ট্রমে ১৯৬ রানে ভাঙে এলগার-মার্করামের জুটি। তবে ব্লুমফন্টেইন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ওপেনিংয়ে শতরানের জুটি গড়লেন এ দু’জন। এতে টানা দ্বিতীয় টেস্টে সেঞ্চুরি তুলে নিলেন ডিন এলগার। আর দক্ষিণ আফ্রিকার নবীন ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করাম ক্যারিয়ারের মাত্র দ্বিতীয় টেস্টেই দেখালেন সেঞ্চুরির কৃতিত্ব। এতে দিনের ৪৭ ওভার শেষে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ দাঁড়ায় ২১৮/০-এ। ব্লুমফন্টেইনে  দিনের প্রথম সেশেনের ২৯ ওভারে সাফল্যবিমুখ থাকেন টাইগার বোলাররা। আর ১২৬/০ সংগ্রহ নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে দেলো দক্ষিণ আফ্রিকা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে দক্ষিণ আপ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠালেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। আর টানা দ্বিতীয় টেস্টে ওপেনিংয়ে শতরানের জুটি গড়লেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যন ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম। ইনিংসে ২৪তম ওভারে দলীয় ১০০ রানের কোঠায় পৌঁছে দক্ষিণ আফ্রিকা। লাঞ্চের আগেই  অর্ধশতক পূর্ণ করেন ডিন এলগার ও এইডেন মার্করাম। ব্যক্তিগত ৭২ রানে এলগার ও ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন মার্করাম। প্রথম শেসনে বাংলাদেশ অধিনায়ক বল তুলে দেন দলের পৃথক পাঁচ বোলারকে। পচেফস্ট্রমে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রানের ইনিংস খেলেন এ প্রোটিয়া ওপেনার এলগার। আর ব্যক্তিগত ৯৭ রানে মার্করামের উইকেট খোয়া যায় রানআউটে।