রিয়াল-ম্যানইউ সুপার কাপ দ্বৈরথ আজ অন্য আবেগে রোনালদো-মরিনহো

30

গত ২৭ বছরে টানা দুই মৌসুমে ইউয়েফা সুপার কাপ জয়ের নজির নেই কোনো দলের। এবার রিয়াল মাদ্রিদের সামনে এমন সুযোগ। তবে এতে তাদের সামনে বড় বাধাই। বিশ্বের জনপ্রিয় দুই দল চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপাধারী রিয়াল মাদ্রিদ ও ইউরোপা লীগের বিজয়ী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইউয়েফা সুপার কাপ দ্বৈরথে মাঠে নামছে আজ। মেসিডোনিয়ার রাজধানী স্কোপিয়ে-তে ফিলিপ টু অ্যারেনা স্টেডিয়ামে খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ১টায়। পরস্পর সাক্ষাতে পাল্লা ভারি স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের। তবে সাম্প্রতিক নৈপুণ্যে উজ্জ্বল ছবিটা ইংলিশ রেড ডেভিলদেরও। প্রাক মৌসুম ফুটবলে ইংলিশ অপর দল ম্যানচেস্টার সিটির কাছে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত হয় কোচ জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার কাছে ৩-২ গোলে হার শেষে যুক্তরাষ্ট্রে অলস্টার দলের সঙ্গে ১-১ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়ে মাদ্রিদিস্তারা। প্রাক মৌসুম ফুটবলে নগর সতীর্থ ম্যান সিটির বিপক্ষে পরিষ্কার ২-০ গোলে জয় দেখে কোচ হোসে মরিনহোর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। আর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রাক মৌসুম টুর্নামেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপে রিয়াল মাদ্রিদ-ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ম্যাচ শেষ হয় ১-১ গোলের ড্রতে। ইউরোপিয়ান শেষ ১১ ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এতে ৮টি জয় ও তিন ম্যাচের ড্রয়ের স্মৃতি রেড ডেভিলদের।
রিয়াল-ম্যানইউর এটি হবে ১১তম সাক্ষাৎ। আগের ১০ সাক্ষাতে চার জয়ের বিপক্ষে দুই হারের স্মৃতি স্প্যানিশ জায়ান্টদের। আর ড্রতে শেষ হয় দু’দলের চার ম্যাচ। ২৭ বছরে প্রথমবার ইউরোপের কুলীন আসর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে টানা দুইবার শিরোপার গৌরব কুড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। সর্বশেষ ১৯৮৯ ও ১৯৯০ সালে এমন কৃতিত্ব দেখায় ইতালিয়ান ক্লাব এসি মিলান। তখন আসরের নাম ছিল ইউরোপিয়ান কাপ। টানা দুইবার ইউয়েফা সুপার কাপ জয়ের গৌরবটাও মিলানের। ১৯৮৯ ও ১৯৯০ সালে এমন কৃতিত্ব দেখায় ইতালিয়ান জায়ান্টরা। এবার সুপার কাপে রিয়াল সমর্থকদের নজরটা থাকবে অবশ্যই ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দিকে। প্রাক মৌসুম সফরে রিয়াল মাদ্রিদ দলের বাইরে ছিলেন ব্যক্তিগত অবকাশে থাকা রোনালদো। তবে সুপার কাপ সামনে রেখে গত শনিবার রিয়াল মাদ্রিদের অনুশীলনে যোগ দেন এ পর্তুগিজ সুপার স্টার। এবারের সুপার কাপ নিয়ে আলাদা আবেগ থাকার কথা রোনালদোর। ২০০৩ থেকে টানা ৬ বছর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সি গায়ে মাঠ মাতান রোনালদো। আর ২০০৯ সালে রেকর্ডগড়া ট্রান্সফারে ম্যানইউ থেকে রিয়াল মাদ্রিদে পাড়ি দেন তিনি। স্পেনে কর ফাঁকি মামলা নিয়ে বিপাকে থাকা রোনালদো এবার ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরতে পারেন বলে গুঞ্জন রয়েছে। ম্যাচটি স্পেশাল ম্যানইউ’র স্পেশাল ওয়ান কোচ হোসে মরিনহোর জন্যও। ২০১০ থেকে টানা চার মৌসুম রিয়াল মাদ্রিদের দায়িত্ব সামলান এ পর্তুগিজ কোচ। সফল কোচ মরিনহো সুপার কাপের স্বাদ পাননি একবারও। এবার রিয়ালের মুখোমুখি হওয়ার আগে মরিনহো বলেন, ইউরোপের সেরা দলের বিপক্ষে খেলার আরেকটি সুযোগ। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে প্রীতি ম্যাচে তাদের বিপক্ষে ভালো স্মৃতি রয়েছে আমাদের।
ইউয়েফা সুপার কাপ কী ?
ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের শীর্ষ দুই আসর চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ও ইউরোপা লীগের বিজয়ী দল নামে সুপার কাপের দ্বৈরথে। এবারেরটি ইউয়েফা সুপার কাপের ৪২তম সংস্করণ। ১৯৭২ সালে প্রথমবার এ কাপের দ্বৈরথে মাঠে নামে তৎকালীন ইউরোপিয়ান কাপ উইনার্স কাপ আসরের বিজয়ী দুই দল। ১৯৯৮ পর্যন্ত দুই লেগের লড়াই শেষে নিষ্পত্তি হচ্ছিল সুপার কাপের। পরে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এক ম্যাচে নিষ্পত্তি হচ্ছে এ ট্রফির। সুপার কাপের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল দুই দলের চিত্রটা বার্সেলোনা ও এসি মিলানের। দু’দলই পাঁচবার নিয়েছে এ শিরোপার স্বাদ। দ্বিতীয় সর্বাধিক তিনবার এ শিরোপার গৌরব রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ ও ইংলিশ ক্লাব লিভারপুলের। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড সুপার কাপ খেলেছে তিনবার। তবে এতে তারা শিরোপার মুখ দেখেছে একবারই। ১৯৯১’র সুপার কাপ জেতে তারা যুগোস্লাভিয়ার রেড স্টার বেলগ্রেডকে হারিয়ে।
সম্ভাব্য একাদশ
রিয়াল মাদ্রিদ: নাভাস (গোলরক্ষক), রামোস, হারনানদেজ, নাচো, কারভাহাল, কাসেমিরো, ক্রুস, মদরিচ, বেল, রোনালদো ও বেনজেমা।
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড: ডি গেয়া (গোলরক্ষক), ভ্যালেন্সিয়া, লিন্ডেলফ, স্মলিং, ব্লিড, মাতিচ, হেরেরা, পগবা, মিখিটারিয়ান, মার্শিয়াল ও লুকাকু।

Advertisement
Print Friendly, PDF & Email
sadi