লক্ষ্মীপুর জেলা কারাগারে যুবদল নেতার মৃত্যু

27

লক্ষ্মীপুর জেলাকারাগারে যুবদল নেতা ফেরদৌস আহম্মদ তারেকের মৃত্যু হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে কারা কর্তৃপক্ষ তাকে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করেছে বলে দাবী করছেন জেলা যুবদলের সভাপতি রেজাউল করিম লিটন। দাবীকৃত টাকা না পাওয়ায় জেলা কারাগারের জেলার শরীফুল ইসলামসহ অন্যরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলেও জানান তিনি। এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত করে জড়িতদের বিচার দাবী করছেন নিহতের স্বজন ও জেলা যুবদল। নিহত ফেরদৌস আহম্মদ তারেক কমলনগর উপজেলার চরজাঙ্গালীয়া এলাকার হোসেন আহমদের ছেলে ও চরজাঙ্গালীয়া ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। জেলা কারাগারের জেলার মো. শরীফুল ইসলাম জানান, শুক্রবার গভীর রাতে হঠাৎ ফেরদৌস আহম্মদ তারেক অসুস্থ হয়ে পড়লে হাসপাতালে নেয়ার পর রাত সাড়ে তিনটার দিকে সে মারা যায়। তাকে কোন ধরণের নির্যাতন করা হয়নি। সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগে তার মৃত্যু হয়েছে। ২০১৪ সালে বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলার আসামী ছিল ফেরদৌস। ওই মামলায় হাজতী ছিলেন তিনি।