শেরপুরের নকলায় ধর্ষণের স্বীকার এক প্রতিবন্ধী কিশোরী

64

জিএইচ হান্নান:  শেরপুর জেলার নকলা উপজেলায় ধর্ষণের শিকার হয়েছে হতদরিদ্র পরিবারের এক প্রতিবন্ধী কিশোরী (১৫)। এ ঘটনায় ৪ অক্টোবর বুধবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে ধর্ষক রুবেল মিয়া (১৯) সহ অপরাপর ৪ সহযোগীর বিরুদ্ধে একটি মামলা হলে ট্রাইবুনালের বিচারক মোহাম্মদ মোছলেহ উদ্দিন ঘটনার বিষয়ে নিয়মিত মামলা রেকর্ড করার জন্য নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, নকলা উপজেলার চন্দ্রকোনা ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের দরিদ্র কৃষক পরিবারের প্রতিবন্ধী কিশোরী গত ৩০ সেপ্টেম্বর দুপুরে জনৈক চানু মিয়া ওরফে চানু চোরার ছেলে রুবেল মিয়ার মুদি দোকানে জিনিস কিনতে যায়। এসময় ওই দোকানে অন্য কোন খরিদদার না থাকার সুযোগে লম্পট রুবেল মিয়া প্রতিবন্ধী কিশোরীকে দোকানের ভেতর কৌশলে ডেকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয় এবং এক পর্যায়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে পেছনের বারান্দায় থাকা চৌকিতে নিয়ে ওই কিশোরীর জামা-কাপড় খুলে ফেলে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষিতা কিশোরী কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফিরে পরিবারের লোকজনকে ঘটনা জানায়। এরপর স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল প্রথমদিকে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দিতে এবং পরে ধর্ষক রুবেল মিয়ার সাথে ওই কিশোরীর বিয়ের ব্যবস্থা করার নামে কাল ক্ষেপন করে। অবশেষে পরিবারের লোকজন এ ঘটনায় চন্দ্রকোনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ করেও কোন সুরাহা না পেয়ে অবশেষে আদালতের আশ্রয় নিয়ে ধর্ষকসহ ও অপরাপর সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।