শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে পুলিশী নির্যাতনে যুবকের মৃত্যুর অভিযোগ : বিক্ষুব্ধ জনতার সড়ক অবরোধ করে অগ্নি সংযোগ

41

জিএইচ হান্নান : শেরপুর জেলার সীমান্তবর্তী নালিতাবাড়ী উপজেলায় পুলিশী নির্যাতনে বিশ^জিৎ চন্দ্র সূত্রধর (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ২ অক্টোবর সোমবার সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নালিতাবাড়ী প্রধান সড়কে বিক্ষুব্ধ জনতা টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। নিহত যুবক পৌর শহরের মৃত বিরেন সূত্রধরের ছেলে এবং পেশায় একজন কাঠমিস্ত্রী।

পুলিশ, নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে উপজেলা পরিষদের সম্মুখ থেকে নালিতাবাড়ী থানার এএসআই আতিয়ার ও সুমনের নেতৃত্বে বিশ^জিৎ সূত্রধরকে কে গাঁজাসহ আটক করে। পরে এলাকাবাসী এবং স্থানীয় নেতাকর্মীদের অনুরোধে ওই যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয় নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ। পরে বিশ^জিৎ বাসায় ফেরার পর হঠাৎ অসুস্থ্যতা বোধ করলে তাকে নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এদিকে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, যুবক বিশ^জিৎকে পুলিশী নির্যাতনের কারণে সে অসুস্থ্য হয়ে মারা যায়। ঘটনার জের ধরে সোমবার সকাল সাড়ে ৮ টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত বিক্ষুব্ধ জনতা টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখে। একপর্যায়ের তারা মৃত বিশ্বজিতের লাশ নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে এবং নালিতাবাড়ী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে ভাঙচুর করে। এঘটনায় বেশ কয়েক ঘন্টা যানচলাচল ও দোকান পাট বন্ধ থাকে এবং মানুষে মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। পরে ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিয়ে পৌর মেয়র ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা এবং পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। বিশ্বজিতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।