শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে ভাঙ্গণের সাত মাসেও সংস্কার হয়নি ব্রীজের সংযোগ সড়ক

67

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) সানী ইসলাম: শেরপুর জেলার সীমান্তবর্তী নালিতাবাড়ী উপজেলায় সম্প্রতি টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে ভাঙ্গণের পর সাত মাসেও সংস্কার করা হয়নি সেতু সংযোগ সড়ক। ফলে জিরাইনাকুড়ি খালের ওপর সাড়ে ছয় কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত সেতুটি দিয়ে কোন যানবাহন চলাচল করতে পারছে না।

এলাকাবাসী ও উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী (এলজিইডি) কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার যোগানিয়া ইউনিয়নরের জিরাইনাকুড়ি খালের ওপর এলজিইডির তত্বাবধানে ২০১৬ সালে সাড়ে ছয় কোটি টাকা ব্যায়ে ১৯০ মিটার দীর্ঘ একটি সেতু নির্মান করা হয়। সেতুটির কারণে মূলত কুন্নগর দুগাঙ্গা বাজার থেকে গেরামারা-ধনাকুশা হয়ে নকলা উপজেলায় যাতায়াত সহজতর হয়। তবে গত মার্চে টানা বর্ষণ ও পাহড়ি ঢলে সেতুর দুই পার্শ্বের ১০০ ফুট সংযোগ সড়ক দেবে এবং ভেঙে যায় এবং এর ফলে যানবাহন চলাচল সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ হয়ে যায়। বাধ্য হয়ে গ্রামের লোকজন পায়ে হেটে চলাচল করতে হচ্ছে।

গেরামারা দাখিল মাদরাসার শিক্ষার্থী মাবিয়া বেগম বলেন, প্রতিদিন এই সেতুর ওপর দিয়া আমাদের মাদরাসায় যেতে হয়। কিন্ত ৭/৮ মাস ধরে সেতুর সংযোগ সড়ক ভেঙে যাওয়ায় রিকশা, গাড়ি চলে না। তাই আমাদের হেটে মাদরাসায় যেতে হয়। এতে আমাদের খুবই কষ্ট হয়।

অপর দিকে যোগানিয়া ইউনিয়ন পরিষদেও (ইউপি) চেয়ারম্যান মো.হবিবুর রহমান হবি বলেন, বিষয়টি আমি অবগত আছি। সেতু সংযোগ সড়কের ভাঙণ অংশে  মাটি ফেলে  দ্রুত চলাচলের উপযোগি করতে  প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে শীঘ্রই।

এব্যাপারে নালিতাবাড়ী এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন এ প্রতিনিধিকে বলেন, সেতুর সংযোগ সড়ক সংস্কারের জন্য এলজিইডি জেলা কার্যালয়ে আবেদন ও অর্থ অনুমোদন চাওয়া হয়েছে। আপাতত চলাচলের উপযোগি করতে ওই সংযোগ সড়কে মাটি ফেলার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।