শেরপুরের শ্রীবরদীতে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার

85

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার পুরান শ্রীবরদী এলাকা থেকে এক গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গৃহবধুর নাম ছাবিনা ইয়াসমিন (২০)। আজ সোমবার সকালে ছাবিনার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিজ স্বামীর বাড়ীতে নিজ স্বামীর ঘরে শায়িত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ওই গৃহবধুর লাশ। ঘটনার পর থেকে ছাবিনার স্বামী সুন্দর আলীসহ শ^শুরবাড়ীর লোকজন গাঢাকা দিয়েছে।
শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, ‘ধারণা করা হচ্ছে শ^াসরোধ করার ফলে ছাবিনার মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিক সুরতহালে গলায় কালো দাগ দেখা গেছে। আর সেই থেকেই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শ^াসরোধে গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে।’
ওসি আরো জানান, সম্ভবত রবিবার রাতে ছাবিনা মারা যায়। সকালে লোকজন ছাবিনার নিথর দেহ দেখে পুলিশকে খবর দেয়।’
নিহত ছাবিনার ভাই রহিম উদ্দিন ও বোন সাজনি বেগম জানান, শ্রীবরদী উপজেলার পুরান শ্রীবরদী গ্রামের মফিজর হকের ছেলে সুন্দর আলীর সাথে বছরখানেক আগে পারিবারিকভাবে পাশর্^বর্তী জেলা জামালপুরে বকশীগঞ্জ উপজেলার শেখেরচর পূর্বপাড়া গ্রামের ভট্টু মিয়ার মেয়ে ছাবিনার বিয়ে হয়। ছাবিনার স্বামী সুন্দর আলীকে বিয়ের সময় ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দেয়া হয়। কিন্তু সুন্দর আলী আরো বেশী যৌতুক দাবী করে প্রায়ই ছাবিনাকে মারধোর করতো।
বিষয়টি তদন্তকালী কর্মকর্তা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আখতার হোসেন জানান, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়ছে। থানায় মামলা বিষয়ে প্রক্রিয়া চলছে।’