শেরপুরের ২যুবতী ১শিশু ঢাকার খিলক্ষেত থেকে নিখোজ অভিভাবক সহ আটক ৩

35

জি.এইচ হান্নান ঃ শেরপুর জেলা শহরের পৌরসভার উপকন্ঠে নৌ হাটা মহল্লার জনৈক আবুল হোসেনের বিবাহিতা মেয়ে চাঁদনি বেগম (২৫) ছোট ভাই তাগবিন (৭) ও বান্ধবী আওরঙ্গজেবের মেয়ে হেলমুন নাহার সাথী (২২) গত ১৬ জুলাই রোববার সকাল ১০টার দিকে ঢাকার খিলক্ষেত এলাকার চাঁদনী বেগমের স্বামী আশরাফ হোসেনের বাসা থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোজ হয়ে যায়। এ ঘটনায় গত ২৪ জুলাই সোমবার সকাল ৭টার দিকে শেরপুর শহরের নৌহাটা মহল্লা থেকে হেলমুন নাহার সাথীর বাবা আওরঙ্গজেব ছেলে আরিফ হোসেন (২৫) ও আল আমিন (২৬) কে ঢাকা থেকে খিলক্ষেত থানার পুলিশ তাদের আটক করে নিয়ে যায় বলে হেলমুন নাহার সাথীর মা আঞ্জুয়ারা বেগম জানায়। এ ঘটনায় ওই পরিবারের সদস্যরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে।
সূত্রে জানা গেছে, শেরপুর শহরে নৌহাটা মহল্লার আবুল হোসেনের মেয়ে চাঁদনী বেগম ঢাকা খিলক্ষেত এলাকায় তার স্বামী আশরাফ হোসেনের বাসায় বসবাস করা অবস্থায় প্রতিবেশী আওরঙ্গজেবের মেয়ে হেলমুন নাহার সাথীর সাথে চাঁদনী বেগমের দীর্ঘদিনের বান্ধবী সূত্রে ঢাকার খিলক্ষেত আশরাফ হোসেনের বাসায় থাকত। এদিকে চাঁদনী বেগমের সাথে আশরাফ হোসেনের দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল বলে হেলমুন নাহার সাথীর মা আঞ্জুয়ারা বেগম এ প্রতিনিধিকে জানান। চাঁদনী বেগম ও আশরাফ হোসেনের এসব দাম্পত্য কলহের ঘটনায় হয়তো বান্ধবী হেলমুন নাহার সাথী, চাঁদনী বেগম ও তার ছোট ভাই তাগবিন ওই দিন হঠাৎ করেই আশরাফ হোসেনের বাসা রাগ করে চলে যায় এবং সেই থেকেই তারা নিখোজ হয়ে যায়। এ ঘটনায় আশরাফ হোসেন হেলমুন নাহার সাথীর বাবা আওরঙ্গজেব তার মা আঞ্জুয়ারা বেগম ও ভাই আরিফ হোসেন ও আল আমিনকে স্ত্রী চাঁদনী বেগম ও শ্যালক তাগবিনকে খুজে বের করে দিতে চাপ প্রয়োগ করে। অবশেষে আশরাফ হোসেন থানা পুলিশের দ্বারস্থ হলে ঢাকার পুলিশ শেরপুরে অভিযান চালিয়ে আওরঙ্গজেব ছেলে আরিফ হোসেন ও আল আমিনকে আটক করে ঢাকায় নিয়ে যায়। ওই তিন জনকে আটকের ঘটনা শেরপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নজরুল ইসলাম ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।