শেরপুরে করোনা ভাইরাস টিকার দ্বিতীয় ডোজ কার্যক্রমের উদ্বোধন

38

জিএইচ হান্নান : শেরপুরে করোনা ভাইরাস টিকার দ্বিতীয় ডোজ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকালে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালের টিকাদান কেন্দ্রে স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) এটিএম জিয়াউল ইসলামের দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণের মাধ্যমে জেলায় এ কার্যক্রমের অনানুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হয়। এসময় সিভিল সার্জন ডা. একেএম আনওয়ারুর রউফ, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মোবারক হোসেন, জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. খাইরুল কবির সুমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

টিকার দ্বিতীয় ডোজের উদ্বোধনী দিনে জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই)’র উপ-পরিচালক মো. গোলাম কিবরিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক চন্দন কুমার পাল পিপি, জেলা বিএমএ সভাপতি এম এ বারেক, প্রবীণ আইনজীবী নিতাই লাল হোড়, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি দেবাশীষ সাহা রায়সহ অনেকেই কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণ করেন। দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণের জন্য জেলা সদর হাসপাতালের টিকাদান কেন্দ্রে আগ্রহী মানুষের বেশ ভিড় দেখা যায়।

সিভিল সার্জন ডা. এ কে এম আনওয়ারুর রউফ বলেন, বৃহস্পতিবার শেরপুর জেলায় ৫৫৩ জন দ্বিতীয় ডোজের ও ১০৩ জন প্রথম ডোজের টিকা গ্রহণ করেন। এদিন দ্বিতীয় ডোজের টিকার পাশাপাশি প্রথম ডোজের টিকাও দেওয়া হয়। দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়ার দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে শরীরে করোনা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি হয়। টিকা গ্রহণের পরও মাস্ক ব্যবহারসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন তিনি।

সিভিল সার্জন আরও জানান, করোনার সংক্রমণ শুরুর পর থেকে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত শেরপুর জেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬২৯ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫৮৫ জন। আর মারা গেছেন ১৩ জন।