শেরপুরে দলিত ‘ঋষি’ সম্প্রদায়ের মন্দির পুনুরুদ্ধার ও বসতভিটা দখল চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন

42

শেরপুরে দলিত ‘ঋষি’ সম্প্রদায়ের মানুষেরা মন্দির পুনুরুদ্ধার ও বসতভিটা দখল চেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সমুখে ‘ঋষি’ সম্প্রদায়ের ৫ শতাধিক মানুষ এই মানববন্ধনে অংশ নেন। পরে তারা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি পেশ করেন।
মৌখিক ও স্মারকলিপিতে লিখিত ভাবে ‘ঋষি’ সম্প্রদায়ের মানুষেরা জানান, শেরপুর পৌরশহরের চাপাতলী মহল্লায় ‘ঋষি’ সম্প্রদায়ের ১১০টি পরিবার বাস করে। সম্প্রতি একটি ঋষি পরিবারকে তাদের জামি থেকে উচ্ছেদ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। এছাড়া ১৯৯২ সালে নির্মিত একটি মন্দির দখল করে নেয়া হয়। অথচ উচ্চ আদালত মন্দিরটি ঋষিদের সম্পত্তি বলেও রায় দিয়েছে। বিভিন্ন সময় প্রভাবশালীদের অত্যাচারে প্রায় শতাধিক ঋষি পরিবার এলাকাছাড়া হয়েছে বলেও তারা জানান।
স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করে, ‘যদি ঋষিদের পৈত্রিক ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করা হয় তাহলে তাঁরা আত্মঘাতি হতে বাধ্য হবে।’
ঋষিদের মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করেন জেলা সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম সম্পাদক এ্যাডভোকে আক্তারুজ্জামান, কমিউনিস্ট পার্টির সম্পাদক সোলায়মান হক, মুক্তিযোদ্ধা তালাতুফ হোসেন মঞ্জু, প্রেসক্লাব সভাপতি রফিকুল ইসলাম আধার, পূজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি দেবাশীষ ভট্টাচার্য, সাংবাদিক শরিফুর রহমান, ট্রাইবাল নেতা মনিন্দ্র বিশ^াস, পূজা উদযাপন পরিষদ নেতা মলয় চাকী প্রমুখ।

Advertisement
Print Friendly, PDF & Email
sadi