শেরপুরে ধর্ষকের বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

37

জি এইচ হান্নান : শেরপুর জেলার সদর উপজেলার চরশেরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী লিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত ধর্ষক জসিম উদ্দিনের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে হিউম্যান রাইটস অব বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন ব্যানারে মানববন্ধন করেছে বিদ্যালয়টির শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

১৬ অক্টোবর সোমবার সকাল ১১ টায় শহরের নিউমার্কেট মোড়ে হিউম্যান রাইটস অব বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন শেরপুর জেলা শাখার আয়োজনে এ মানববন্ধনে জেলার বিভিন্ন সামাজিক ও মানবাধিকার সংগঠনের সদস্যসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে।

মানববন্ধনে বক্তারা ওই শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, শিশুরা জাতির ভবিষ্যত। কোমলমতি শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে যাতে নির্ভয়ে যেতে পারে, আরেকটি শিশুও যাতে এইরকম লম্পট পুরুষের লালসার শিকার না হয়, সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দ্রুত ধর্ষক জসিমকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

এসময় বক্তারা শেরপুর সদর হাসপাতাল কৃর্তপক্ষের ধর্ষিতার রিপোর্ট নিয়ে লুকোচুরি ও চালবাজির অভিযোগ তুলে মানববন্ধন শেষে ধর্ষিতার পুনঃ ডাক্তারী পরীক্ষা করার জন্য ও ধর্ষককে দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তি দাবী করে সিভিল সার্জন, জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করে।

লিখিত স্মারক লিপিতে, গত ৬ অক্টোবর শুক্রবার বিকেলে বাজার থেকে ফেরার পথে তৃতীয় শ্রেণি পড়ুয়া ঐ শিক্ষার্থীকে জোর করে ধর্ষণ করে একই এলাকার ২ সন্তানের জনক জসিম উদ্দিন। ঐদিন রাতেই শিশুটির পিতা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধিত) আইনের ৯(১) ধারায় মামলা করলেও এখন পর্যন্ত ধর্ষককে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে ধর্ষিত শিশুকে গুরুতর অবস্থায় শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করলে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় এ খবর প্রকাশিত হলে প্রভাবশালী মহলের যোগসাজসে হাসপাতাল থেকে প্রয়োজনীয় ডাক্তারী পরীক্ষার প্রতিবেদন নিয়ে হতাশার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।