শেরপুরে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণ মামলার রায়ে একজনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-

33

শেরপুর থেকে জিএইচ হান্নান ঃ শেরপুরে বুদ্ধি ও শারিরিক প্রতিবন্ধী শিশুকে (৯) ধর্ষণের দায়ে তৈয়ব আলী (৩৮) নামে এক রিকশাচালককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারা- দিয়েছেন আদালত।  ৩ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক (অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ) মোসলেহ্উদ্দিন এ রায় দেন। একই সাথে ধর্ষিতার পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা আসামীর কাছ থেকে আদায় করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দেন আদালত।

আদালত সূত্রে মামলার বিবরণে জানা গেছে, বিগত ২০১২ সালের ১ জুন দুপুর একটার দিকে নালিতাবাড়ী উপজেলার বনকূড়া গ্রামের ৯ বছর বয়সী এক বাক ও শারিরিক প্রতিবন্ধী মেয়েকে আম দেওয়ার কথা বলে একই গ্রামের ইমান আলীর ছেলে তৈয়ব আলী বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে পার্শ্ববর্তী একটি পরিত্যক্ত ভিটে-বাড়িতে নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটি ঘটনাটি তার মা ও বাবাকে জানায়। পরে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ওই বছরের ৩ জুন নালিতাবাড়ি থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের প্রায় দেড় মাস পর ১৩ জুলাই আসামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর ১৭ জুলাই তৈয়ব আলীর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে আদালতে দাখিল করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ডাক্তারসহ ৮ জন সাক্ষির সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ ৩ আগষ্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালত এ দণ্ডাদেশ প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষে পিপি গোলাম কিবরিয়া বুলু ও আসামীপক্ষে অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম মামলাটি পরিচালনা করেন।