শেরপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে কিশোর নিহত ॥ আর.বি.অটো রাইস মিলের অফিস কক্ষ ভাংচুর

518

জিএইচ হান্নান : শেরপুর জেলা শহরের পৌরসভার ঢাকলহাটী মহল্লার আর.বি. অটো রাইস মিলের ড্রায়ারের চালের উপর ১১ কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে মারুফ (১৬) নামে এক কিশোর ৪ এপ্রিল রোববার ভোরে নিহত হয়েছে। কিশোর মারুফ ঢাকলহাটী মহল্লার মৃত ইমান আলীর ছেলে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ কতিপয় এলাকাবাসী আর.বি.অটো রাইস মিলের অফিস কক্ষ ভাংচুর করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পৌর শহরের ঢাকলহাটী মহল্লার আর.বি.অটো রাইস মিলটি ২/৩ মাস বন্ধ থাকায় সংস্কার কাজ চলছিল। রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সংষ্কার কাজের মিস্ত্রি ও লেবাররা ওই মিলের ড্রায়ারের চালের উপর দিয়ে রয়ে যাওয়া ১১কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের নিচে এক অজ্ঞাত কিশোরের গলাসহ শরীরের অন্যান্য অংশে বিদ্যুতে ঝলসানো অবস্থায় দেখতে পেয়ে মিল মালিক আলহাজ্ব মো. আঃ রহীমকে বিষয়টি জানায়। পরে শেরপুর সদর থানায় খবর দেয়া হলে সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আনোয়ার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল গিয়ে প্রথমে অজ্ঞাতনামা ওই কিশোরের লাশ উদ্ধার করে। পরে তার পরিহিত টাউজারের ডান পকেটে থাকা একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। পরে সেই মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে পরিচয় পাওয়া যায় তার নাম মারুফ। মারুফের লাশের সূরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে ময়না তদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে এঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই দিন দুপুরে ঢাকলহাটী মহল্লার কতিপয় উচ্ছৃংখল যুবক আর.বি.অটো রাইস মিলে প্রবেশ করে অফিস কক্ষ ভাংচুর করে।

খবর পেয়ে সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আনোয়ার হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এব্যাপারে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন নিশ্চিত করে বলেন, নিহত মারুফের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করছে। সেই সাথে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।