শেরপুরে মা ও শিশুদের জীবনমান উন্নয়ন সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত

35

জি.এইচ হান্নান ঃ শেরপুরে ‘স্থানীয় পর্যায়ে সম্পদ ব্যবহারের মাধ্যমে মা ও শিশুদের জীবনমান উন্নয়ন’ সংক্রান্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ৬ আগস্ট রোববার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন। এতে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ টি এম জিয়াউল ইসলাম। ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন এ কর্মশালার আয়োজন করে।

কর্মশালায় প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন বলেন, মা ও শিশুদের জীবনমান উন্নয়নে বাল্যবিবাহ হচ্ছে প্রধান অন্তরায়। কারণ বাল্যবিবাহ একটি অভিশাপ। এর মাধ্যমে অপরিণত বয়সে প্রসূতি মা ও তাঁর নবজাতক শিশু পুষ্টিহীনতায় ভুগে। এ কারণে শিশু ও মাতৃমৃত্যুর হারও বেশী। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্যি দেশের অন্য জেলার তুলনায় শেরপুর জেলায় বাল্যবিবাহের হার বেশী। তবে প্রশাসনসহ বিভিন্ন শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের তৎপরতায় বাল্যবিবাহের হার ক্রমান্বয়ে কমে আসছে। এ ছাড়া শিশুশ্রম নিরোধ ও শিশু নির্যাতন আইনের কঠোর প্রয়োগ এবং প্রতিটি শিশুর শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করার মাধ্যমে শিশুদের জীবনমান উন্নয়ন করা সম্ভব। এজন্য স্থানীয় সম্পদ ব্যবহার করাসহ স্থানীয় সরকারের বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে শিশুদের জন্য উন্নয়নমূলক কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। যাতে আগামী দিনের নেতৃত্বদানকারী শিশুরা সঠিক ও সুস্থভাবে বেড়ে ওঠতে পারে।

কর্মশালায় আরো বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ফরিদ আহমেদ, সদর ও ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যথাক্রমে মো. ছানুয়ার হোসেন ও মো. আমিনুল ইসলাম, সিভিল সার্জন মো. সেলিম মিঞা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শামসুল আলম সরকার, নকলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব কুমার সরকার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এনামুল হক, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার আরাফাত উল আলম, ইউনিসেফ, ময়মনসিংহ কার্যালয়ের প্রকল্প কর্মকর্তা মো. আমানউল্লাহ প্রমুখ।