সরকার নিজেই চালের সংকট সৃষ্টি করেছে: ফখরুল

24

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার মানুষের মৌলিক সমস্যা সমাধান করতে পারেনি। চালের দাম আকাশচুম্বী হয়ে গেছে, সাধারণ মানুষ চাল কিনতে পারছে না। অথচ সরকারের মন্ত্রীরা এখনো জোর গলায় বলছেন চালের কোনো সংকট নেই। এটা সরকার নিজেই সংকট তৈরি করেছেন বলেই চালের দাম মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। মানুষের মাঝে এখন হাহাকার। আজ বুধবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও পৌর কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির পক্ষ থেকে ২শ বন্যাদুর্গত ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কি ভয়াবহ সংকট সৃষ্টি হয়েছে। মায়ানমার সেনাবাহিনী নিরীহ রোহিঙ্গাদের নির্যাতন, হত্যা করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দিচ্ছে। আমরা প্রথম থেকেই বলেছি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিতে হবে, আবার যেন তারা দেশে ফিরে যেতে পারে সেজন্য মায়ানমার সরকারের উপর আন্তজার্তিক কূটনৈতিক ভবে চাপ সৃষ্টি করতে হবে। সরকার প্রথম দিকে রোহিঙ্গাদের প্রবেশ ও আশ্রয়ের জায়গা দেয়নি। সমগ্র বিশ্ব এখন রোহিঙ্গাদের পক্ষে কথা বলছেন, মিয়ানমার সরকারকে ধিক্কার দিচ্ছেন। তাই সরকার এখন রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত লাখ লাখ মানুষ খোলা আকাশে নিচে, বৃষ্টিতে ভিজে, শত শত শিশু আক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু সরকার এখন পর্যন্ত রোহিঙ্গাদের সেইভাবে আশ্রয় ও প্রয়োজনীয় সুবিধা দিতে পারে নাই। এ সময় বক্তব্য রাখেন, এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুন্সি বজলুর বাসিদ আঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আহসানুল্লাহ হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, পৌর মেয়র মির্জা ফয়সল আমীন, জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, তাহেরুল ইসলাম তুহিন, এম কফিল উদ্দিন, আব্দুল্লাহ বাকী, মনিরুল আলম রাহিমী, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, আক্তার হোসেন. কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুল কাদের বাবু, জসিম উদ্দিন প্রমুখ। পরে ঠাকুরগাঁওয়ে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ ২০০ পরিবারের হাতে এক বান করে ঢেউটিন তুলে দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সূত্র : মানবজমিন অনলাইন পত্রিকা