৬ শিশুকে পুড়িয়ে হত্যা করলো স্কুলের গার্ড

25

ব্রাজিলের একটি নার্সারি স্কুলের গার্ড ৬ শিশু ও তাদের শিক্ষকের শরীরে আগুন দিয়ে হত্যা করেছে। এর আগে তাদের গায়ে অ্যালকোহল ঢেলে দেয় সে। বর্বর এই হত্যাকান্ডে পুরো ব্রাজিল শোকস্তব্ধ। বলা হচ্ছে, হত্যাকারী ওই গার্ড মানসিক বিকারগ্রস্থ। পরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে সেও মারা যায়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আনুমানিক ৫০ জন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি ও স্কাইনিউজ। খবরে বলা হয়, ঘটনাটি ঘটেছে জানাউবা নামের একটি শহরে। সেখানকার মেয়র সাত দিনের শোক ঘোষণা করেছেন। স্থানীয় একটি হাসপাতালের পরিচালক ব্রুনো আতাইদে সান্তোস জানান, আনুমানিক ৫০ জন ব্যক্তি আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আহতদের অবস্থা এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জানা যায় নি।
খুনি ওই গার্ডের বয়স আনুমানকি ৫০। অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় কয়েক ঘণ্টা পর সে হাসপাতালে মারা যায় বলে জানিয়েছেন সান্তোস।
হামলার সময় স্কুলটিতে আনুমানিক ৮০ শিশু উপস্থিত ছিল। খবর পাওয়া মাত্র সেখানে ছুটে যান তাদের পিতা-মাতা। নিহত চার শিশুর পিতা-মাতা স্কুলের সামনে গগনবিদারি বিলাপ করতে থাকেন। পুলিশ হত্যাকারীর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। নৃশংস এই হত্যাকান্ডের মোটিভ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে তারা। তবে, পুলিশ সুপার রেনাটো নিউনস স্থানীয় একটি সংবাদপত্রকে বলেন, ওই গার্ড ২০১৪ সাল থেকে মানসিক রোগী। তার বাড়িতে পুলিশ সদস্যরা  বিপুল পরিমান মদের বোতল খুজে পেয়েছে বলে জানান রেনাটো।
ওই নার্সারি স্কুলে ৮ বছর ধরে সে চাকরি করছিল বলে জানা গেছে। ব্রাজিলেল প্রেসিডেন্ট মিচেল তেমের এ ঘটনায় ভুক্তোভোগী পরিবারগুলোর প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

 

 

 

 

 

 

সূত্র : মানবজমিন অনলাইন পত্রিকা