৮৮-তে লতা মঙ্গেশকর

47

উপমহাদেশের কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকরের ৮৮তম জন্মদিন আজ। ১৯২৯ সালের এই দিনে বৃটিশ ভারতের ইন্দোরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ছোটবেলা থেকেই গানের প্রতি ভালোবাসা গড়ে উঠেছিল তার। পারিবারিক উৎসাহেই তার গানের চর্চা শুরু হয়। ১৯৪২ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে পেশাগত সংগীতশিল্পী হিসেবে কাজ শুরু করেন তিনি। প্লে-ব্যাকের জন্য অনেক উপযুক্ত ছিল বিধাতা প্রদত্ত লতার মিষ্টি কণ্ঠ। এ কারণেই তারপর আর কখনো পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। সে সময় থেকে আজ পর্যন্ত প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে অসংখ্য হিট সুপারহিট গান তিনি উপহার দিয়েছেন। ভারতের ইতিহাসের সর্বাধিক সফল নারী প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে ধরা হয় লতা মঙ্গেশকরকে। নিজের সুরেলা কণ্ঠের মাধ্যমে প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে ১৯৫০ সাল থেকে সারা বিশ্বের শ্রোতাদের মুগ্ধ করে আসছেন তিনি। এক হাজারেরও বেশি হিন্দি ছবির গানে তিনি কণ্ঠ দিয়েছেন। হিন্দিসহ প্রায় ৩৬টি ভাষায় তিনি এখন পর্যন্ত গান গেয়েছেন। ১৯৭৪ থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশিসংখ্যক গান গেয়ে লতা মঙ্গেশকরের নাম উঠে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে। এই সময়ে তিনি ২০টি ভাষায় ২৫০০০-এরও বেশি গানে কণ্ঠ দেন। এই রেকর্ডটি ২০১১ সালে ভেঙে দেন তারই ছোট বোন আশা ভোঁসলে। সংগীতের ইতিহাসে সর্বাধিক গানে কণ্ঠ দেয়ার গৌরব অর্জন করে গিনেস বুক অব রেকর্ড ওয়ার্ল্ডে নাম লেখান আশা। তবে আশা নিজেও তার সংগীতের অনুপ্রেরণা হিসেবে সব সময় বড় বোন লতাকেই মেনে আসছেন। আরডি বর্মণ, এসডি বর্মণ থেকে শুরু করে এখনকার অনু মালিক ও যতীন-ললিতদের মতো সংগীত পরিচালকদের সঙ্গেও সমান তালে কাজ করেছেন লতা। বর্তমানে গান গাওয়া কমিয়ে দিলেও একদমই সরে যাননি তিনি। পছন্দসই কোনো প্রস্তাব পেলে নিজের সুরেলা কণ্ঠের জাদু এখনও ছড়ান। তার গাওয়া উল্লেখযোগ্য জনপ্রিয় হিন্দি গানের মধ্যে রয়েছে পেয়ার কিয়াতো ডারনা কেয়া, আজিব দাসতা হে ইয়ে, কাহি দিল জালে কাহি দ্বীপ, আজারে পারদেশী, আপকি নজরোসে সামঝা, লাগজা গালে, ন্যায়না বারসে রিমঝিম, তুঝে দেখাতো ইয়ে জানা সনম, মেরে জীবন সাথি, শিশা হো ইয়া দিল হো, নদীয়া কিনারে, আভি তো ম্যায় জাওয়ান হু, ধীরে সে আজা রে, রাত ভি কুচ হ্যায়, হামকো হামিসে চুরালো, কাভি খুশি কাভি গামসহ আরও অসংখ্য গান। আর বাংলা গানের মধ্যে রয়েছে আষাঢ় শ্রাবণ মানে না তো মন, একবার বিদায় দে মা ঘুরে আসি, ওই গাছের পাতায় রোদের ঝিকিমিকি, যদিও রজনী পোহালো, হায়হায় প্রাণ যায়, চলে যেতে যেতে দিন, সাত ভাই চম্পা জাগরে, আকাশ প্রদীপ জ্বেলে, না যেও না, যারে যারে উড়ে যা পাখি, কি লিখি তোমায় প্রভৃতি।