শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল স্মরণে শেরপুরে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ : নেত্রকোনা ২-১ গোলে জয়ী

17

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র ও আবাহনী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর ৭৩ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শেরপুরে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচে আমন্ত্রিত নেত্রকোনা জেলা একাদশ ২-১ গোলে স্বাগতিক শেরপুর জেলা একাদশকে হারিয়ে জয়লাভ করেছে। ৫ আগস্ট শুক্রবার বিকেলে শেরপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রীতি ফুটবল ম্যাচটির আয়োজক ছিলো শেরপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থা।

টান টান উত্তেজনায় ঠাসা এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচটি আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমজমাট হয়ে ওঠে। খেলার শুরুর দিকে স্বাগতিক শেরপুর বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ সৃষ্টি করলেও ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় সেগুলো আর পূর্ণতা পায়নি। সেইসাথে প্রতিপক্ষ নেত্রকোনা দলও ডিফেন্সের দৃঢ়তায় বিপদ সামাল দিয়ে কাউন্টার অ্যাটাকে শেরপুরের ডিফেন্সে বেশ কয়েকবার আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তবে প্রথমার্ধে কোন দলই গোল করতে না পারায় গোলশুন্যভাবে খেলা এগিয়ে চলতে থাকে। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠ নামার সময় স্বাগতিক শেরপুর জেলা দলের মধ্যে বদলী খেলোয়াড় নামানো নিয়ে অন্ত:দ্বন্দ্ব দেখা দিলে দল মাঠে নামতে বেশ কিছু সময় অতিক্রান্ত হয়ে যায়। এমনকি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে খেলা ডিফেন্ডার আতিক আর মাঠে না নামায় শেরপুর দলের মনোবলে ঘাটতি দেখা দেয়। বিষয়টি মাঠে ব্যাপক দৃষ্টিকটু অবস্থার সৃষ্টি করে। প্রায় দশ মিনিট পর আবারো খেলা শুরু হলে দ্বিতীয়ার্ধের ১৫ মিনিটে নেত্রকোনা একাদশের ১৬ নাম্বার জার্সি পড়ুয়া ফরোয়ার্ড রাসেল মিয়া ডিফেন্সের ভুলের সুযোগ নিয়ে ডি-বক্সের বাম প্রান্ত থেকে স্ট্রেট ড্রাইভে শেরপুরের জালে বল জড়িয়ে দিলে নেত্রকোনা একাদশের খেলোয়াড়রা উল্লাসে ফেটে পড়ে। গোল খাওয়ার পর নতুন উদ্যমে জেগে ওঠে শেরপুরের খেলোয়াড়রা। মুহুর্মুহু আক্রমণের ফলে নেত্রকোনার ডিফেন্সে ভাঙণ দরলে দ্বিতীয়ার্ধের ২২ মিনিটের মাথায় অধিনায়ক রাজনের করা কর্ণার কিকের বলে আলতো মাথা ছুইয়ে শেরপুরের বদলী নামা ২ নং জার্সিধারী রিপনের হেড়ে প্রতিপক্ষের জালে বল জড়ালে শেরপুর শিবিরে আনন্দের ঢেউ বয়ে যায়। পুরো গ্যালরি নতুন উদ্যমে জেগে ওঠে। খেলা ১-১ গোলে সমতায় আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে চলে। গ্যালারীতে বসা বিপুল সংখ্যক করতালিতে উভয় দলকে উৎসাহ যোগাতে থাকে। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের ২৯ মিনিটের সময় আবারো শেরপুরের ডিফেন্সের ভুলের সুযোগ নিয়ে গোলকিপারকে ফাঁকি দিয়ে আলতো টোকায় নেত্রকোনা দলের স্ট্রাইকার ১০ নং জার্সি পড়ুয়া রেজ্জাতুল ইসলাম বল জালে জড়িয়ে খেলার ব্যবধান গড়ে দেন ২-১। এরপর শেরপুর জেলার খেলোয়াড়রা আপ্রাণ চেষ্টা করে বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ সৃষ্টি করলেও ডি-বক্সে গিয়ে খেই হারিয়ে ফেলায় ১-২ গোলের পরাজয় নিয়েই শেরপুর একাদশকে মাঠ ছাড়তে হয়।

খেলার শুরুতে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক সাহেলা আক্তার প্রীতি ফুটবল ম্যাচটির উদ্বোধন করেন। পরে জেলা প্রশাসক এবং অতিথিরা উভয় দলের খেলোয়াড়দের সাথে পরিচিত হন এবং রজনীগন্ধা ফুল দিয়ে তাদের শুভেচ্ছা জানান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুকতাদিরুল আহমেদ-এর সভাপতিত্বে অতিথি জেলা পরিষদের প্রশাসক হুমায়ুন কবির রুমান, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক পিপি অ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পাল, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সাইয়্যেদ এ জেড মোরশেদ আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু বক্কর সিদ্দিক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) হান্নান মিয়া, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র নজরুল ইসলাম সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তাবৃন্দ ও বিপুল সংথ্যক ক্রীড়ামোদি দর্শক খেলাটি উপভোগ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
sadi